আজীবন নিষিদ্ধ অনন্য মামুন

মালয়েশিয়ায় আদম পাচারের অভিযোগে পরিচালক অনন্য মামুনের সদস্যপদ আজীবন নিষিদ্ধ করেছে বাংলাদেশ চলচ্চিত্র পরিচালক সমিতি। শনিবার (২০ ডিসেম্বর) সমিতির বার্ষিক সাধারণ সভায় এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।

এ প্রসঙ্গে চলচ্চিত্র পরিচালক সমিতির মহাসচিব বদিউল আলম খোকন বলেন, ‘মামুন এর আগেও অপরাধমূলক কাজ করেছেন। যার কারণে তার সদস্যপদ বাদ দেওয়া হয়েছিলো। পত্র-পত্রিকায় দেখছি, মালয়েশিয়ার পুলিশের কাছে দোষ স্বীকার করেছেন মামুন। আমরাও মালয়েশিয়ান দূতাবাসে যোগাযোগ করে নিশ্চিত হয়েছি। তাই তাকে আজীবন নিষিদ্ধ করা হয়েছে। সে এবার আমাদের পরিচালকদের সম্মান নষ্ট করেছে। পরিচালক সমিতি তাকে বয়কট করল। এই সমিতির সঙ্গে তার কোনো সম্পর্ক নেই।’

এর আগে, ২০১৫ সালের ২৬ ডিসেম্বর পরিচালক সমিতির এক জরুরি বৈঠকের মাধ্যমে প্রথম সদস্যপদ বাতিল করা হয় অনন্য মামুনের। তখন তার বিরুদ্ধে অভিযোগ ছিলো- যৌথ-প্রযোজনার নামে প্রতারণা এবং জাল সার্টিফিকেট দিয়ে পরিচালক সমিতির সদস্যপদ নেওয়া। এরপর অঙ্গীকারনামা দিয়ে সেই সদস্যপদ ফিরে পান মামুন।

২০১০ সালে ‘খোঁজ দ্য সার্চ’ চলচ্চিত্রের মাধ্যমে ক্যারিয়ার শুরু করেন অনন্য মামুন। এরপর বেশ কয়েকটি চলচ্চিত্র নির্মাণ করেন তিনি। সর্বশেষ ‘বন্ধন’ নামে একটি সিনেমার কাজ তিনি শেষ করেছেন।

গত ২৪ ডিসেম্বর মালয়েশিয়ান পুলিশের হাতে আটক হন বাংলাদেশি চলচ্চিত্র পরিচালক অনন্য মামুন। রাজধানী কুয়ালালামপুরের জালান ইপোর পুত্রা কোর্ট কন্ডোমিনিয়ামের একটি অ্যাপার্টমেন্ট থেকে ১৫ জন বাংলাদেশিসহ তাকে ধরা হয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Shares