ভাসানীর আদর্শ ধারণ করে এগিয়ে যেতে হবে : ড. কামাল

ড. কামাল হোসেন বলেন, স্বাধীনতা সংগ্রামসহ জনগণের পক্ষে সবগুলো আন্দোলনে নেতৃত্ব দিয়েছেন মওলানা আবদুল হামিদ খান ভাসানী। ভাসানী আমাদের প্রেরণার উৎস। আমরা আজকে যে কাজগুলো করছি তার প্রেরণা থেকেই।

মওলানা ভাসানীর ৪২তম মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে আজ শনিবার সকালে টাঙ্গাইলের সন্তোষে তার সমাধিতে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানান তিনি। এসময় তার সঙ্গে কৃষক শ্রমিক জনতা লীগের সভাপতি কাদের সিদ্দিকী ও ঐক্যফ্রন্ট নেতা সুলতান মোহাম্মদ মনসুরসহ নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

বেলা সাড়ে ১১টার দিকে বিএনপির পক্ষ থেকে সাবেক মন্ত্রী আব্দুল্লাহ আল নোমান ও শামসুজ্জামান দুদুর নেতৃত্বে নেতাকর্মীরা মাজারে পুষ্পস্তবক অর্পণ করেন।

ড. কামাল বলেন, মজলুম জননেতা যে শিক্ষা-প্রেরণা দিয়ে গেছেন তা এগিয়ে চলার পথকে আরও মসৃণ করবে। সন্তোষ থেকে প্রেরণার আলো সারাদেশে ছড়িয়ে পড়বে।

বিএনপি নেতা আব্দুল্লাহ আল নোমান বলেন, দেশে গণতন্ত্র পুনঃ প্রতিষ্ঠার লড়াইয়ে মানুষ এগিয়ে যাচ্ছে। কিন্তু নির্বাচন কমিশন তার দায়িত্ব পালন করছে না। তারা সরকারের হুকুমে চলছে।

তিনি বলেন, নির্বাচন অবাধ সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ হওয়ার লক্ষণ দেখা যাচ্ছে না। নির্বাচন থেকে সরানোর জন্য পরিকল্পনা করা হচ্ছে। আমারা নির্বাচন থেকে সরতে চাই না। বেগম খালেদা জিয়াকে নিয়েই নির্বাচনে যেতে চাই।

ভাসানীর মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে আজ শনিবার সকাল সাড়ে ৭টার দিকে তার সমাধিতে পুষ্পস্তবক অর্পণ করার মধ্যে দিয়ে কর্মসূচির সূচনা করেন মওলানা ভাসানী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর ড. মো. আলাউদ্দিন। এর পর থেকে বিভিন্ন সামাজিক-সাংস্কৃতিক সংগঠন ও রাজনৈতিক দলসহ বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের পক্ষ থেকে সমাধিতে পুষ্পস্তবক অর্পণ শুরু হয়।