‘আমি স্বেচ্ছায় গাড়িটি রাস্তায় রেখে গেলাম…’

প্রায় পাঁচ কোটি টাকার একটি গাড়ি জব্দ করেছে শুল্ক গোয়েন্দা ও তদন্ত অধিদপ্তর।

বৃহস্পতিবার বেলা সাড়ে ১১টার দিকে ঢাকার গুলশানে অভিযান চালিয়ে ওই বিলাসবহুল গাড়িটি জব্দ করা হয়।

শুল্ক গোয়েন্দা ও তদন্ত অধিদপ্তর জানায়, অধিদপ্তরের মহাপরিচালক ড. মো. সহিদুল ইসলামের তত্ত্বাবধানে একটি টিম গুলশান-১ এ অভিযান চালালে গাড়িটি রেখে পালিয়ে যান এর মালিক। এক পর্যায়ে নম্বর প্লেট বিহীন অবস্থায় উদ্ধার হয় গাড়িটি।

গাড়িতে একটি চিরকুট পাওয়া যায়। এতে লেখা ছিল, “আমি স্বেচ্ছায় গাড়িটি রাস্তায় রেখে গেলাম। কিন্তু, আমি গাড়িটির আমদানিকারক নই। আমদানিকারককে আইনের আওতায় নেয়ার জন্য শুল্ক গোয়েন্দা ও তদন্ত অধিদপ্তরের নিকট বিনীত অনুরোধ রইল। আমি দেশের আইনের প্রতি সর্বদা শ্রদ্ধাশীল এবং শুল্ক গোয়েন্দা ও তদন্ত অধিদপ্তরের কার্যক্রমকে সাধুবাদ জানাই এবং এ ধরনের কার্যক্রম অব্যাহত রাখার জন্য বিনীত অনুরোধ জানাচ্ছি।”

শুল্ক গোয়েন্দা, বাংলাদেশের ফেসবুক পেইজে জানানো হয়েছে, জব্দকৃত গাড়িটি টয়োটা ল্যান্ড ক্রজারের ভি এইট- ২০১৩ মডেলের। শুল্ক গোয়েন্দা ও তদন্ত অধিদপ্তরের মহাপরিচালক ড. মো: সহিদুল ইসলামের সার্বিক তত্ত্বাবধানে একটি টিম গাড়িটি আটকে অভিযান শুরুর এক পর্যায়ে গুলশান-১ এর ১১২ নং সড়কে  মালিক/চালক গাড়িটি রেখে পালিয়ে যায়। শুল্ক করাদিসহ গাড়িটির আনুমানিক মূল্য ৫ কোটি টাকা। এ বিষয়ে বিস্তারিত তদন্ত শেষে কাস্টমস আইন ও মানিলন্ডারিং প্রতিরোধ আইনে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *