আমে ফরমালিন, বুঝবেন যেভাবে

জৈষ্ঠ্য মাসকে মধু মাস বলা হয়। কেননা এ সময় অনেক দেশীয় ফল পাওয়া যায়। এ সময় পাওয়া যায় আম, জাম, কাঁঠাল, লিচুসহ হরেকরকমের ফল। তবে এর মধ্যে আবার প্রধান আকর্ষণ হলো আম। আম খেতে ভালোবাসেন না এমন মানুষ খুঁজে পাওয়া যায় খুব কম। পাওয়া যায় না বললেই চলে।

আমের প্রতি মানুষের এক ধরনের আকর্ষণ আছে। তবে দুঃখের বিষয় হলো বর্তমানে অপরিপক্ক আমকে পাকাতে কিছু অসাধু ব্যবসায়ীরা তাতে কার্বাইড দিয়ে পাকায়। যা খেলে ক্যান্সারের ঝুঁকি থেকে যায়। আজকে কিভাবে ফরমালিন দেয়া আম চেনা যায়, তা নিয়েই আলোচনা করবো। এরপর সেই আম তাজার রাখার জন্য ফরমালিন ব্যবহার করা হয়।

ফরমালিনযুক্ত আম : আমগুলো দেখতে সম্পূর্ণ হলুদ হবে। দেখতে খুব সুন্দর হবে। চকচকে দেখা যাবে। কোনো দাগ থাকবে না, মোলায়েম দেখাবে। কোনো ঘ্রাণ নেই বরং হালকা দুর্গন্ধ থাকবে। কোনো স্বাদ থাকবে না। আমের উপর কখনো মাছি বসে না।

ফরমালিনমুক্ত আম : ফরমালিনমুক্ত আম : কীটনাশক এবং ফরমালিনমুক্ত আমে কাচাপাকা রং হয়। আমের গায়ে সাদাটে ভাব থাকবে; কালো কালো দাগও থাকবে। আমের বোটায় সুঘ্রাণ থাকবে। মুখে দিলে টক-মিষ্টি স্বাদ পাওয়া যাবে। আমে মাছি বসবে। আবার কিছু আম আছে যা পাকলেও রং সবুজই থাকে। এদের গায়ে কালো কালো দাগ থাকবে। সুঘ্রাণ থাকবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *