ইরান নিয়ে ট্রাম্পের ভয়ঙ্কর মন্তব্য

মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প ইরানে বিক্ষোভের ব্যাপারে বলেছেন, দেশটির জনগণ পরিবর্তন চায় এবং নিপীড়নমূলক সরকার চিরকাল টিকে থাকতে পারে না। শনিবার দ্বিতীয় দিনের মতো ইরানের বিক্ষোভের ব্যাপারে এমন মন্তব্য করেন তিনি। খবর এএফপি’র।

গত সেপ্টেম্বর মাসে জাতিসঙ্ঘ সাধারণ অধিবেশনে দেয়া ভাষণের দু’টি অংশ টুইটারে পোস্ট দেন ট্রাম্প। তার ভাষণের এ দু’টি অংশে ইরান সরকারকে লক্ষ্য করে বক্তব্য রয়েছে। মধ্যপ্রাচ্যে ওয়াশিংটনের প্রধান প্রতিপক্ষ হচ্ছে ইরান।

জাতিসংঘে দেয়া বক্তব্যের বরাত দিয়ে তিনি টুইটার বার্তায় বলেন, ‘নিপীড়নমূলক সরকার চিরকাল টিকে থাকতে পারে না এবং এমন একদিন আসবে যখন ইরানের জনগণ তাদের সরকার নির্বাচন করবে।’
তিনি বলেন, ‘সারাবিশ্ব ইরানকে পর্যবেক্ষণ করছে।’

এদিকে শনিবার সন্ধ্যার দিকে ভাইস প্রেসিডেন্ট মাইক পেন্স ট্রাম্পের সুরে সুর মিলিয়ে বলেন, সন্ত্রাসী কর্মকান্ড, দুর্নীতি এবং তাদের মানবাধিকার লঙ্ঘনের অবসানে ইরানের এ সরকারের চলে যাওয়ার সময় এসে গেছে।

 

ইরানে দুই বিক্ষোভকারী নিহত : ডেপুটি গভর্নর
ইরানের পশ্চিমাঞ্চলীয় দোরুদ শহরে গতরাতে দুই বিক্ষোভকারী নিহত হয়েছে। সরকার বিরোধী বিক্ষোভ সারা দেশে ছড়িয়ে পড়ার প্রেক্ষাপটে এ ঘটনা ঘটে। রোববার প্রদেশের ডেপুটি গভর্ণর এই ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন। খবর বার্তা সংস্থা এএফপি’র।

লোরেস্তান প্রদেশের ডেপুটি গভর্ণর হাবিবুল্লাহ্ খোজাস্তেহপোউর রাষ্ট্রীয় টেলিভিশনে বলেন, ‘শনিবার সন্ধ্যায় দোরুদে অবৈধ বিক্ষোভ চলছিল এবং বেশ কয়েকজন লোক বিরোধী পক্ষের আহ্বানে রাস্তায় নামে। এ সময় উভয় পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষ বেঁধে যায়।’

তিনি আরো বলেন, ‘দুর্ভাগ্যজনকভাবে এই সংঘর্ষে দোরুদের দুই নাগরিক নিহত হয়েছে।’
বিস্তারিত কিছু না জানিয়ে তিনি আরো বলেন, তবে নিরাপত্তা বাহিনীর সদস্যরা বিক্ষোভকারীদের গুলি করেনি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Shares