এক জোড়া জুতার দাম ৩৪ লাখ!

বেশ রঙচঙে দেখতে এক জোড়া স্নিকার্স। কেতাদুরস্ত মানুষ যেমন পরেন আর কী। তবে, এগুলোর দাম শুনলে অবাক হবেন কোনও মধ্যবিত্ত মানুষ। ৩৪ লাখ টাকা দাম এক জোড়া জুতার! এমনটা শুনেছেন কখনও? অবাক হচ্ছেন নিশ্চয়। শুধু আপনিই নন, স্নিকার্সের দাম জেনে বিস্মিত অভিনেতা ঋষি কাপুরও।

বৃহস্পতিবার নিউ ইয়র্কের একটি নামী জুতার দোকানে কেনাকাটা করতে যান প্রবীণ তারকা। আর তখনই জুতাগুলোর দাম জেনে চমকে ওঠেন তিনি। তারপরেই নিজের টুইটারে চারটি স্নিকারের ছবি পোস্ট করেন ঋষি কাপুর।

ক্যাপশনে তিনি লেখেন, ‘জুম করে জুতাগুলোর দাম কত দেখে নিন। জুতো সোনার হোক বা রূপোর, শেষমেষ তার স্থান পায়েই।’

জুম করে জুতাগুলোর দাম দেখেই সকলেই চোখ কপালে উঠেছে। চারটি জুতার মধ্যে সব থেকে কম দামি জুতাটির দামই প্রায় ১৩ লাখ টাকা। অন্যদিকে সব থেকে দামি জুতাটির দাম ভারতীয় মুদ্রায় প্রায় ২৭ লাখ টাকা। আর বায়লাদেশি টাকার মূল্য প্রায় ৩৪ লাখ।

এক জোড়া স্নিকার্সের এমন দাম শুনে চক্ষু চড়কগাছ নেটিজেনদের। তবে ঋষি কাপুর নিউ ইয়র্কের যে জুতার দোকানে গিয়েছিলেন, সেখানে এমন দাম নতুন কিছু নয়। ‘ফাইট ক্লাব’ নামের এই দোকানে জুতার দাম শুরুই হয় ১ লাখ টাকার আশেপাশে। প্রায় ৩০ লাখ টাকা পর্যন্ত দামের জুতা মেলে সেখানে। বিভিন্ন নামী সংস্থার নামজাদা ডিজাইনারদের বানানো জুতা বিক্রি হয় এই দোকানে। ডিজাইনারদের তালিকায় আছেন বিখ্যাত বাস্কেটবল তারকা থেকে নামি র‌্যাপ গায়ক।

ভাবছেন এত দামি দামি জুতা কে কিনবে? জানলে অবাক হবেন, এই দোকানে বিক্রিবাটা হয় ভালই। ক্রেতাদের তালিকায় আছেন হলিউডের নামী অভিনতা, টেনিস তারকা থেকে শুরু করে পপ গায়িকা।

একজন নামজাদা বলি তারকা হয়েও মধ্যবিত্তদের মতো সারল্যের জন্য ঋষি কাপুরের প্রশংসায় নেটিজেনরা। তবে, তার ছেলে রণবীর কাপুর নিজেই ২ লাখ টাকা দামের স্নিকার্স পরেন। পোস্টের কমেন্টে সেই কথাও মনে করাতে ভুললেন না তারা।