এরশাদের শারীরিক অবস্থার অবনতি, নেওয়া যাচ্ছে না বিদেশে

এরশাদের শারীরিক অবস্থার অবনতি হওয়ায় তাকে লাইফ সাপোর্টে রাখা হয়েছে। বিদেশে নিয়ে চিকিৎসা দেওয়ার মতো অবস্থা নেই বলে জানিয়েছেন পার্টির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান জিএম কাদের।

বৃহস্পতিবার (৪ জুলাই) সন্ধ্যা সাড়ে ৭টায় জাতীয় পার্টির বনানী অফিসে এরশাদের শারীরিক অবস্থা নিয়ে সবশেষ ব্রিফিংয়ে তিনি একথা বলেন।

তিনি বলেন, হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ ফুসফুসের সংক্রমণ কমলেও শ্বাসকষ্ট হচ্ছিলো। আবার কিডনি কিছুটা কাজ করলেও তার শরীর থেকে বর্জ্য বের হচ্ছিলো না। তাই সম্মিলিত সামরিক হাসপাতাল সিএমএই-এর চিকিৎসকরা হুসেইন মুহম্মদ এরশাদকে বিকেল ৪টা ১০ মিনিট থেকে লাইফ সাপোর্টে রেখেছেন।

তিনি আরো বলেন, তার অঙ্গ-প্রতঙ্গ অনেকগুলোই কাজ করছে না তাই এই মুহূর্তে বিদেশে নেওয়া যাবে না। তাকে ঘুমের ওষুধ ও পেইনকিলার দেওয়া হয়েছে বলে জানিয়েছেন চিকিৎসকরা।

সিএমএই-এর চিকিৎসকদের বরাত দিয়ে গোলাম মোহাম্মদ কাদের বলেন, সিঙ্গাপুর ন্যাশনাল ইউনির্ভাসিটি হাসপাতালের চিকিৎসকদের কাছে পল্লীবন্ধুর সব রিপোর্ট মেইল করা হয়েছে। কিন্তু সিঙ্গাপুরের চিকিৎসকরা এমন শারীরিক অবস্থায় এয়ার অ্যাম্বুলেন্সে সিঙ্গাপুরে নিয়ে যাওয়াকে সমর্থন করেনি।

জিএম কাদের আরো বলেন, সিএমএইচ-এর চিকিৎসকরা নিরলসভাবে চিকিৎসা দিচ্ছেন। নিবিড় পর্যবেক্ষণে রেখে পল্লীবন্ধুর শারীরিক উন্নতি ও অবনতি বিবেচনায় চিকিৎসা দিচ্ছেন। দেশি-বিদেশি বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকদের সঙ্গে যোগাযোগ রক্ষা করছেন সিএমএইচ-এর বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকরা।

এই মুহূর্তে আল্লাহর উপর ভরসা করা ছাড়া আর কিছু নেই। তাই দেশবাসীর কাছে এরশাদের রোগমুক্তি কামনায় দোয়া চেয়েছেন তিনি।