ওভারলোডের কারণে ট্রেন দুর্ঘটনা: মন্ত্রিপরিষদ সচিব

অতিরিক্ত যাত্রীবহনের (ওভারলোড) কারণে সিলেটের মৌলভীবাজারে ট্রেন দুর্ঘটনা ঘটেছে বলে জানিয়েছেন মন্ত্রিপরিষদ সচিব মোহাম্মদ শফিউল আলম। সোমবার সচিবালয়ে মন্ত্রিসভা বৈঠকের ব্রিফিংয়ে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি এ তথ্য জানান। প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে মন্ত্রিসভা বৈঠক হয়। এতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সভাপতিত্ব করেন।

রোববার রাত ১২টার দিকে মৌলভীবাজারের কুলাউড়ার বরমচাল স্টেশনের পাশে ঢাকাগামী উপবন এক্সপ্রেসের বগি ছিটকে পড়ে। এতে এ পর্যন্ত ছয়জনের নিহত হওয়ার খবর পাওয়া গেছে। তিনশতাধিক যাত্রী নিয়ে রোববার রাতে সিলেট স্টেশন থেকে ঢাকার উদ্দেশে ট্রেনটি ছেড়ে যায়।

ট্রেন দুর্ঘটনায় বিষয়ে মন্ত্রিসভা বৈঠকে কোন আলোচনা হয়েছে কিনা- জানতে চাইলে মন্ত্রিপরিষদ সচিব বলেন, ‘উদ্ধার কাজ চলছে। আমাদের অল এজেন্সিস, রেল সচিব নিজেই আছে। র‌্যাব, বিজিবি, ফায়ার ব্রিগড থেকে শুরু করে সবাই ওখানে ঝাঁপিয়ে পড়েছে। আমরা অফিসিয়ালি যেটা জানি চারজনের লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। চাপা পড়ে আরও লাশ থাকতে পারে। সেটা সরানোর প্রক্রিয়া চলছে। এতে ২৪ ঘণ্টা লেগে যেতে পারে।’

এ বিষয়ে প্রধানমন্ত্রী কোন নির্দেশনা দিয়েছে কিনা- এমন প্রশ্নের জবাবে শফিউল আলম বলেন, ‘না, পুরনো ব্রিজগুলো পর্যায়ক্রমে রিপ্লেস করার অনুশাসন আগে থেকেই আছে, ওটা আলোচনা হয়েছে। সড়কে অব্যবস্থাপনার কারণে সবাই ট্রেনে ঝাঁপিয়ে পড়েছে। ট্রেনের ছাদ থেকে শুরু করে এমন কোন জায়গা ছিল না যেখানে লোকজন উঠেনি। ওভারলোডেড ছিল, এজন্য ওটা কলাপস করেছে।’

তিনি আরও বলেন, ‘রেলমন্ত্রী আমাদের আশ্বস্ত করেছেন ২৪ ঘণ্টার মধ্যে রেল যোগাযোগ চালু হয়ে যাবে। সড়কও সমান চেষ্টা করছে। সড়কের বিষয়টি একটু সময়ে লাগবে। সর্বোচ্চ এক সপ্তাহের মধ্যে ওটা ঠিক হয়ে যাবে।’