কুয়েতে এসি বিস্ফোরণে বাংলাদেশি এক পরিবারের ৫ জন নিহত

কুয়েতে অগ্নিকাণ্ডে বাংলাদেশি এক পরিবারের মা, ছেলে, মেয়েসহ পাঁচজন মারা গেছেন। নিহতরা সবাই মৌলভীবাজার জেলার কমলগঞ্জ উপজেলার সদর ইউনিয়নের কান্দিগাও গ্রামের বাসিন্দা।

অগ্নিকাণ্ডে নিহতরা হলেন- জুনেদ মিয়ার স্ত্রী রোকেয়া বেগম, দুই ছেলে এমা ও ফাহাদ এবং দুই মেয়ে জামিলা ও নাবিলা। সোমবার দুপুরে কুয়েতের সালমিয়াহ এলাকার একটি এপার্টমেন্ট ভবনের অগ্নিকাণ্ডে পাঁচজন নিহত হওয়ার খবর দিয়েছে কুয়েত নিউজ এজেন্সি।

তাদের প্রতিবেদনে নিহতদের এশীয় একটি পরিবারের সদস্য উল্লেখ করা হয়েছে। তবে কুয়েত প্রবাসীদের কাছ থেকে কমলগঞ্জের কান্দিগাও গ্রামে স্বজনদের কাছে ছেলে-মেয়েদেরসহ রোকেয়ার মৃত্যুর খবর আসে।

জালালাবাদ অ্যাসোসিয়েশনের কুয়েত শাখার ফেসবুক পাতায় তাদের মৃত্যুর খবর জানিয়ে বলা হয়, ওই ভবনের চতুর্থ তলায় এসি বিস্ফোরিত হয়ে আগুনের সূত্রপাত হয়। ধোঁয়ায় শ্বাসরোধে মারা যান বাংলাদেশি ওই পরিবারের সদস্যরা।

কান্দিগাও গ্রামে জুনেদের পাশের বাড়ির বাসিন্দা মুক্তিযোদ্ধা জয়নাল আবেদিন জানায়, অগ্নিকাণ্ডের সময় জুনেদ বাইরে ছিলেন। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে তিনি সবাইকে মৃত দেখে জ্ঞান হারিয়ে ফেলেন।

লাশ পাঁচটি কুয়েতের মোবারক আল কাবির হাসপাতালে রয়েছে।

প্রতিবেশী জয়নাল জানান, গ্রামের বাড়িতে জুনেদের বৃদ্ধ মা ছাড়া আর কেউ নেই। জুনেদের অন্য দুই ভাইয়ের মধ্যে এক ভাই জুবের সপরিবারে আমেরিকা এবং অন্য ভাই সোয়েব সপরিবারে লন্ডন থাকেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Shares