কেরালায় ভয়াবহ বন্যা, মৃত ৩২৪

ভারতের কেরালা রাজ্যে ভয়াবহ বন্যায় অন্তত ৩২৪ জনের প্রাণহানি হয়েছে। দেশটির দক্ষিণাঞ্চলীয় এই রাজ্যে বিস্তীর্ণ এলাকা পানিতে ডুবে গেছে। উদ্ধারকারী দল বন্যাকবলিত লোকজনকে নিরাপদ স্থানে সরিয়ে নিতে দিন-রাত কাজ করে যাচ্ছে।

সরকারি কর্মকর্তাদের বরাত দিয়ে বিবিসি বলছে, ভয়াবহ এই বন্যায় দুই লাখেরও বেশি মানুষকে নিরাপদ স্থানে সরিয়ে নেওয়া হয়েছে। তাদের আবাসনের জন্য অস্থায়ী শিবির করা হয়েছে। পরিস্থিতি মোকাবিলায় সেনা মোতায়েন করা হয়েছে। তাঁরা উদ্ধার ও ত্রাণ তৎপরতায় অংশ নিচ্ছেন। কোথাও কোথাও হেলিকপ্টার দিয়ে উদ্ধারকাজ করা হচ্ছে। উদ্ধারকাজে ৩০০ নৌকাও নামানো হয়েছে। তবে কেউ কেউ বিপদে থাকলেও বাড়ি ছাড়তে চাচ্ছেন না বলে অভিযোগ করছেন উদ্ধারকারীরা। সরকার উদ্ধারকারীদের নির্দেশনা মেনে তাঁদের নিরাপদ আশ্রয়ে যেতে আহ্বান জানিয়েছে।

বিমানবাহিনীর সদস্যরা হেলিকপ্টার ব্যবহার করে দুজনকে উদ্ধার করেন। কেরালা, ভারত ১৭ আগস্ট। ছবি: রয়টার্সবিমানবাহিনীর সদস্যরা হেলিকপ্টার ব্যবহার করে দুজনকে উদ্ধার করেন। কেরালা, ভারত ১৭ আগস্ট। ছবি: রয়টার্সকেরালা রাজ্য সরকার বলছে, বন্যার সঙ্গে ভূমিধস হওয়ায় পরিস্থিতি জটিল আকার ধারণ করেছে। ভূমিধসের কারণে প্রাণহানির সংখ্যা বেড়েছে। ধ্বংসস্তূপ থেকে লোকজনকে উদ্ধার করা কঠিন হয়ে দাঁড়িয়েছে। রাজ্যের প্রধান বিমানবন্দর বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। ২৬ আগস্ট পর্যন্ত বিমানবন্দর বন্ধ রাখতে হবে বলে জানিয়ে দেওয়া হয়েছে।Eprothomalo

মুরগির খামারের মালিক স্বেচ্ছাসেবীদের সহায়তায় মুরগিগুলোকে নিরাপদ স্থানে সরিয়ে নিচ্ছেন। কেরালা, ভারত ১৭ আগস্ট। ছবি: এএফপিমুরগির খামারের মালিক স্বেচ্ছাসেবীদের সহায়তায় মুরগিগুলোকে নিরাপদ স্থানে সরিয়ে নিচ্ছেন। কেরালা, ভারত ১৭ আগস্ট। ছবি: এএফপিস্থানীয় আবহাওয়া দপ্তর বলছে, রাজ্যে আরও ভারী বর্ষণের আশঙ্কা করা হচ্ছে। এ কারণে রেড অ্যালার্ট জারি করা হয়েছে।

ভারতের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় বলছে, জুনে এবার বর্ষা মৌসুম শুরু হয়েছে। এরপর থেকে দেশটিতে বন্যার কারণে এ পর্যন্ত ৯৩০ জনেরও বেশি মানুষ প্রাণ হারিয়েছে।

Leave a Reply