খালেদা জিয়াকে ছাড়া নির্বাচনে যাবে না বিএনপি

দুর্নীতির মামলায় সাজা হলেও, বেগম জিয়াকে ছাড়া আগামী জাতীয় নির্বাচনে অংশ নেবেনা বলে সাফ জানিয়ে দিয়েছে বিএনপি। তাদের দাবি, রাজনৈতিক উদ্দেশ্যেই সাজা দেয়া হয়েছে বিএনপি চেয়ারপারসনকে।

তবে, ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ নেতারা বলছেন, রায়ের সঙ্গে কোন সম্পর্ক নেই দলটির। আইনি প্রক্রিয়ায় বেগম জিয়ার মুক্তি ও নির্বাচনে অংশ নেয়ার সুযোগ রয়েছে বিধায়, গণতন্ত্রের স্বার্থে বিএনপির নির্বাচনে অংশ নেয়া উচিত বলে মনে করেন আওয়ামী লীগ নেতারা।

২০০৬ সালে ক্ষমতা ছাড়ার পর দীর্ঘ প্রায় ১২ বছর ক্ষমতার বাইরে রয়েছে দেশের অন্যতম প্রধান রাজনৈতিক বিএনপি। সরকারের নানা কৌশল ও নিজেদের কিছু সিদ্ধান্তের বেড়াজালে দলটিকে বের হতে হয়েছে সংসদ থেকেও।

এমন অবস্থায়, আগামী একাদশ জাতীয় নির্বাচনের মাত্র কয়েকমাস আগে দুর্নীতির অভিযোগ দলীয় প্রধানের সাজা হওয়ায় রাজনীতির মাঠে নিজেদের টিকিয়ে রাখতেই লড়াই করছে বিএনপি।

তার মধ্যে বেগম জিয়ার সাজার পর নির্বাচনী যোগ্যতা প্রশ্নে দোলাচলে থাকা বিএনপি নতুন করে ভাবছে নির্বাচনে অংশ নেয়া নিয়ে। তবে, আওয়ামী লীগ নেতার বলছেন, গণতন্ত্রের স্বার্থেই নির্বাচনে প্রয়োজন দলটিকে।

দুর্নীতি প্রমাণ হওয়ায় আইনি প্রক্রিয়ায় বেগম খালেদা জিয়ার সাজা হয়েছে বলে মনে করেন আওয়ামী লীগ নেতারা। তবে, এর জন্য সরাসরি সরকারকে দায়ি করে বিএনপি বলছে, রজনীতি ও নির্বাচন থেকে দূরে রাখতেই এমন কৌশল নিয়েছে ক্ষমতাসীনরা।

এ অবস্থায় রাজনৈতিক দলগুলোর পাল্টাপাল্টি অভিযোগ ও দায় চাপানোর রাজনীতি, আগামী নির্বাচনে বড় প্রভাব ফেলবে বলে মনে করেন রাজনৈতিক বিশ্লেষকরা।

সূএ: সময় টিভি

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *