খাশোগি ইস্যুতে সৌদি সম্মেলন বাতিল করল যুক্তরাষ্ট্র-যুক্তরাজ্য

সাংবাদিক জামাল খাশোগি ইস্যুতে সৌদি আরবে আনুষ্ঠেয় এক সম্মেলন বয়কট করেছেন যুক্তরাষ্ট্রের ট্রেজারি সেক্রেটারি স্টিভেন মিউচিন এবং যুক্তরাজ্যের ইন্টারন্যাশনাল ট্রেড সেক্রেটারি লিয়াম ফক্স। বিবিসি এক প্রতিবেদনে এই তথ্য জানিয়েছে।

সৌদি সাংবাদিক জামাল খাশোগি হত্যায় সৌদি আরব জড়িত রয়েছে বলে বিভিন্ন মহল থেকে অভিযোগ করা হচ্ছে। মূলত এ কারণে দেশটিতে অনুষ্ঠেয় ইনভেস্টমেন্ট কনফারেন্স বাতিল করলো যুক্তরাষ্ট্র ও যুক্তরাজ্য।

এর আগে নেদারল্যান্ড ও ফ্রান্সের অর্থমন্ত্রীসহ বিভিন্ন রাজনীতিক, ব্যবসায়িক নেতৃবৃন্দ এই সম্মেলন থেকে নিজেদের প্রত্যাহার করে নেন।

যুক্তরাষ্ট্রের ট্রেজারি সেক্রেটারি মিউচিন দেশটির প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প ও পররাষ্ট্রমন্ত্রী মাইক পম্পেও-এর সাথে আলোচনার পর এমন সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। এর আগে চলতি সপ্তাহের শুরুতে খাশোগি নিখোঁজের ব্যাপারে সৌদি বাদশা সালমানের সঙ্গে আলোচনা করতে রিয়াদ যান পম্পেও।

এ সময় সৌদি কর্তৃপক্ষ তাকে বিষয়টি নিয়ে তদন্ত করার নিশ্চয়তা দেয়। এ কারণেই দেশটির বিরুদ্ধে কোনও পদক্ষেপ নেয়ার আগে আরও কিছুদিন সময় দেয়ার জন্য ট্রাম্পকে পরামর্শ দিয়েছেন পম্পেও।

তদন্ত সম্পর্কে অ্যামিনেস্টি ইন্টারন্যাশনাল, হিউম্যান রাইসটস ওয়াচ, রিপোর্টারস উইদাউট বর্ডাস এবং দ্য কমেটি টু প্রটেক্ট জার্নালিস্টস নামের কয়েকটি সংগঠন জানিয়েছে, সৌদি আরবের একতরফা তদন্ত তেমন ভালো হবেনা।

প্রসঙ্গত, ২ অক্টোবর তুরস্কের ইন্তাম্বুলে সৌদি কনস্যুলেটে প্রয়োজনীয় কাগজ-পত্র আনতে যান সাংবাদিক জামাল খাশোগি। এরপর থেকে পাওয়া যাচ্ছে না তাকে।

Leave a Reply