‘গণবিস্ফোরণে’ সরকার পতন: মওদুদ

বিএনপি নেতা মওদুদ আহমদ বলেছেন, সর্বদলীয় জাতীয় ঐক্য সৃষ্টি করে ‘গণবিস্ফোরণে’ আওয়ামী লীগ সরকারের পতন ঘটাবেন তারা।

শনিবার দুপুরে জাতীয় প্রেস ক্লাবে এক আলোচনা সভায় বিএনপির স্থায়ী কমিটির এই সদস্য বলেন, “যদি আমরা বাঁচতে চাই, যদি আমাদের গণতান্ত্রিক অধিকার ফিরিয়ে আনতে চাই, যদি দেশে সভ্যতা ফিরিয়ে আনতে চাই তাহলে আমাদের কোনো বিকল্প নাই।

“হয় সরকারকে বাধ্য করতে হবে একটা সমঝোতায় আসতে শান্তিপূর্ণভাবে। আর তা না হলে যে ধরনের কর্মসূচি অতীতে দিয়ে এ রকম স্বৈরাচারী সরকারকে অপসারণ করা হয়েছে সেই ধরনের উপযুক্ত কর্মসূচি দিতে হবে। আজকে এটা আমাদের সকলকে অনুধাবন করতে হবে।”

‘গণতন্ত্র ফিরিয়ে আনার’ এই চ্যালেঞ্জ মোকাবিলায় ‘জাতীয় ঐক্য’ সৃষ্টির করতে হবে মন্তব্য করে মওদুদ বলেন, “সর্বদলীয় জাতীয় ঐক্য সৃষ্টি করে গণবিস্ফোরণের মাধ্যমে এই সরকারের পতন ঘটাতে হবে।”

বাংলাদেশ মানবাধিকার পরিষদের উদ্যোগে ‘বর্তমান প্রেক্ষাপটে মানবাধিকার ও ভোটের অধিকার’ শিরোনামে এই আলোচনা সভায় নির্বাচন কমিশনের কঠোর সমালোচনা করেন বিএনপি নেতা মওদুদ।

তিনি বলেন, “এই কমিশন সরকারের একটি তল্পিবাহক প্রতিষ্ঠানে পরিণত হয়েছে। গাজীপুর ও খুলনা সিটি নির্বাচনের মাধ্যমে তাদের মুখোশ খুলে গেছে।

“এটি নির্লজ্জ নির্বাচন কমিশন। আমাদের যেসব দাবি আছে যে, নির্দলীয় সরকারের অধীনে নির্বাচন, নব্বই দিন আগে সংসদ ভেঙে দিতে হবে, সেনাবাহিনীকে ম্যাজিস্ট্রেসি ক্ষমতা দিতে হবে ইত্যাদির পাশাপাশি বর্তমান নির্বাচন কমিশনকে অবশ্যই পুনর্গঠন করতে হবে। এ কমিশন দিয়ে কাজ হবে না।”

খালেদা জিয়ার কারামুক্তি না হওয়ার জন্য নিম্ন আদালতের বিচারকদের দোষারোপ করেন সাবেক আইনমন্ত্রী মওদুদ আহমদ।

তিনি বলেন, “দেশের উচ্চতম আদালত যেখানে বেগম খালেদা জিয়াকে জামিন দিচ্ছেন সেখানে নানা কৌশলে নানাভাবে ষড়যন্ত্র করে সেই আদেশকে অকার্যকর করে দেওয়ার জন্য আজকে নিম্ন আদালতের একজন ম্যাজিস্ট্রেটকে ব্যবহার করা হচ্ছে। এই ম্যাজিস্ট্রেট কে? এই ম্যাজিস্ট্রেট নির্বাহী বিভাগের অধীনে কাজ করেন।”

গত ডিসেম্বরে বিচারকদের চাকরির শৃঙ্খলাবিধির গেজেট প্রকাশের মধ্য দিয়ে ‘নিম্ন আদালতের সব কিছু নির্বাহী বিভাগের অধীনে কাছে চলে গেছে’ বলে মন্তব্য করেন ব্যারিস্টার মওদুদ।

“এভাবে বিচার বিভাগকে সরকার ধ্বংস করে দিয়েছে।বিচার বা সুবিচার যেটা বোঝায় সেটা সম্পূর্ণভাবে নস্যাৎ করে দিয়েছে এই ধরনের প্রক্রিয়ার মাধ্যমে।”

খালেদা জিয়ার মুক্তির জন্য আইনি প্রক্রিয়ার পাশাপাশি রাজপথে আন্দোলনে যেতে হবে বলে মন্তব্য করেন তিনি।

কোটা সংস্কারের দাবিতে আন্দোলনরতদের ওপর হামলা, মামলার নিন্দা জানান মওদুদ আহমদ।

আয়োজক সংগঠনের চেয়ারম্যান অধ্যাপক রফিকুল ইসলামের সভাপতিত্বে ও মহাসচিব আ স ম মোস্তফা কামালের পরিচালনায় আলোচনা সভায় অন্যদের মধ্যে বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান শামসুজ্জামান দুদু, নির্বাহী কমিটির সদস্য খালেদা ইয়াসমীন, আবু নাসের মুহাম্মদ রহমাতুল্লাহ, নিপুন রায় চৌধুরী, জাসাসের শাহরিন ইসলাম শায়লা, কৃষক দলের শাহজাহান সম্রাট প্রমুখ বক্তব্য রাখেন।

Leave a Reply