গলায় কাঁটা বিঁধেছে?

মাছে-ভাতে বাঙালি। বাঙালির পাতে আর যাই জুটুক মাছ তো থাকতেই হবে। কিন্তু মাছও যে মাঝে মাঝে বিপত্তি ঘটায়। গালায় কাঁটা বিঁধলে কষ্টের সীমা থাকে না। তাই বলে কী বাঙালি মাছ খাবে না?

আর ইলিশের স্বাদ ও গন্ধে তো বাঙালি পাগল। সামনে দুর্গা পূজা। আর ইলিশ ছাড়া তো পূজা জমেই না। কিন্তু ইলিশের কাঁটার বদনাম তো রয়েছেই।

ঘরোয়া কয়েকটি উপায় অনুসরন করলেই যেকোন মাছের কাঁটা থেকে রক্ষা পেতে পারেন সহজেই।

অনেকেই মাছের কাঁটা দূর করার সহজ উপায় হিসাবে এক দলা সাদা ভাতের মণ্ড খেয়ে থাকেন। নরম ছোট কাঁটা হলে এতে অনেক সময় নেমেও যায়। কিন্তু এ ছাড়াও বেশ কিছু ঘরোয়া উপায়ে দূর করা যায় মাছের কাঁটা। সেসব উপায় তুলে ধরা হলো-

গলায় কাঁটা আটকালে হালকা গরম পানিতে একটু লেবু দিয়ে সেই মিশ্রণ খান, লেবুর অ্যাসিডিক ক্ষমতা কাঁটাকে নরম করে দিতে সক্ষম। ফলে এই মিশ্রণ খেলে কাঁটা নরম হয়ে নামবে সহজে।

গলায় কাঁটা বিঁধলে দেরি না করে অল্প অলিভ অয়েল খেয়ে নিন। অলিভ অয়েল অন্য তেলের তুলনায় বেশি পিচ্ছিল। তাই গলা থেকে পিছলে নেমে যাবে কাঁটা।

লবনও কাঁটা নরম করে, তবে শুধু লবন না খেয়ে পানিতে মেশান। একটু গরম করে নিয়ে সেই পানি বেশ খানিকটা লবন মিশিয়ে নিন। সেই লবন পানি খেলে সহজেই নেমে যাবে কাঁটা।

​পানির সঙ্গে মিশিয়ে নিন ভিনিগার। ভিনিগার কাঁটাকে নরম করার ক্ষমতা রাখে। তাই এই মিশ্রণ খেলে কাঁটা সহজেই নেমে যায়।​

Leave a Reply