চলতি বছরেই ধ্বংস হচ্ছে পৃথিবী!

পৃথিবীর শেষ দিন প্রায় আসন্ন। ২০১৭ এর অক্টোবরেই ধ্বংস হতে চলেছে পৃথিবী৷ এমনই এক ভয়ংকর সত্য উঠে এসেছে গবেষক ডেভিড মিডের গবেষণায়৷ তাঁর বিখ্যাত বই ‘প্ল্যানেট এক্স: দ্য ২০১৭ অ্যারাইভাল’ বইটিতেই উঠে এসেছে এই কঠোর সত্যিটি। একটি বিশাল বড় গ্রহ এসে সজোরে ধাক্কা মারবে পৃথিবীকে৷ আর তাতেই ভেঙে চুড়মার হয়ে যাবে এই গ্রহটি।

এই বছরের আগামি সেপ্টেম্বর এবং অক্টোবরেই এই ভয়ংকর ঘটনাটি ঘটতে চলেছে৷ আর এই ধ্বংস যে অবশ্যাম্ভাবীই তার জ্বলন্ত প্রমাণও রয়েছে৷ বিশ্বের ধনী ব্যক্তিরা ইতিমধ্যেই নতুন বাঙ্কার তৈরি করেছে এই ধ্বংসাত্মক পরিস্থিতির মধ্যে বেঁচে থাকার জন্য।

এই প্রসঙ্গে মিডে বলেন, মানুষের মধ্যে যাতে প্যানিক সৃষ্টি না হয় তাই ইচ্ছে করেই এই বিষয়টি সম্পর্কে মানুষকে অন্ধকারের মধ্যে রাখা হয়েছে৷ ভূমিকম্পের পরিমাণও বেড়ে যাবে প্রবল ভাবে৷ কম্পনের মাত্রাও যত দিন যাবে তত বৃদ্ধি পাবে। তত্ত্ববিদরা দাবি করেন, নেপচুনের পরেও রয়েছে একটি গ্রহ যেটি প্ল্যানেট এক্স কিংবা নিবিড়ু নামে পরিচিত৷ ওই গ্রহটিই পৃথিবীকে ধ্বংস করতে চলেছে বলে দাবি করেন ওই তত্ত্ববিদেরা৷ এর আগেও ২০১৫ সালের ডিসেম্বরে এবং সেপ্টেম্বরে এই প্ল্যানেট এক্সের দ্বারা পৃথিবী ধ্বংস হতে চলেছিল৷

যদিও এই বিষয়টি সম্পর্কে নাসা জানিয়েছে, নিবুড়ুর এই বিষয়টি সম্পূর্ণভাবেই ভিত্তিহীন৷ এই বিষয়টির কোনও তথ্যপ্রমাণই নেই৷  যদি আগামি অক্টোবরে এই গ্রহটির জন্যই পৃথিবী ধ্বংস হয় তাহলে এই গ্রহটি ইতিমধ্যেই দেখা যেতো আকাশে৷ এমনটাই দাবি করেছে নাসার জ্যোতির্বিজ্ঞানীরা। সূত্র: কলকাতা টুয়েন্টিফোর।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Shares