ছাগলকে ধর্ষণ! হাতে-নাতে আটক তরুণ

যুক্তরাজ্যভিত্তিক প্রকাশিত পত্রিকা দ্য সান জানিয়েছে, গর্ভবতী (গাভীন) ছাগলকে ধর্ষণ করার অভিযোগে গ্রাম থেকে তাড়িয়ে দেওয়া হয়েছে এক তরুণকে। ওই তরুণকে তার নিজ ঘর থেকে হাতে-নাতে ধরে ফেলে এলাকাবাসী। নাইজেরিয়ার উগো নামক গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। ২০ বছর বয়সী শিনা র‍্যাম্বো নামের তরুণের বিরুদ্ধে এ অভিযোগ করা হয়েছে।

এলাকাবাসী জানায়, ওই তরুণের ঘর থেকে ছাগলের ডাক শোনা যাচ্ছিল। এরপর জোর করে দরজা খোলা হয়। একটি গর্ভবতী ছাগলের সঙ্গে আপত্তিকর কাজে লিপ্ত থাকা অবস্থায় তাঁকে ধরা হয়। এরপর তাঁকে এলাকার কর্তা ব্যক্তিদের হাতে তুলে দেওয়া হয়।

এরপর ছাগলের দড়ি দিয়ে গলা বেঁধে রাখা হয়। সবার সামনেই নগ্ন করা হয় ওই তরুণকে। সেই সঙ্গে তাঁর মা-বাবাকেও গ্রাম ছাড়া করেছে এলাকাবাসী।

এদিকে স্থানীয় একটি গণমাধ্যম সূত্রে জানা গেছে, ওই গ্রামের এক নেতা জানান, আজই প্রথম নয়। এর আগেও র‍্যাম্বো এমন বিকৃত কাজ করেছে। এসব কাজ করার জন্য এর আগেও দু’টি গ্রাম থেকে তাকে বের করে দেওয়া হয়। চুরিও করত সে। তার মা-বাবাকেও গ্রাম ছাড়তে বলা হয়েছে। এছাড়া ওই নেতা আরও জানান, র‍্যাম্বোকে কিছু জরিমানাও করা হবে।

সূত্রঃ দ্য সান

Leave a Reply