ছেলেদের স্মার্টনেস

ছেলেরা বরাবরই সাজ গোজের দিকে উদাসীন। তবে এই শৈথিল্যতা, টি-শার্টটি কোথা থেকে কেনা সে ব্যাপারে মানা গেলেও, পরিষ্কার-পরিচ্ছন্নতা বা পরিপাটির দিক দিয়ে একেবারেই ছাড় দেয়া চলবেনা।

স্মার্টনেস, অনেক ক্ষেত্রেই খুব দামী পোশাক নির্বাচনের ওপর তেমন না হলেও, পুরোদস্তর পরিপাটির ওপর নির্ভরশীল। আমাদের আশেপাশে যতই স্মার্ট ছেলেদের দেখা যায়, তারা কিন্তু সবাই যথেষ্ট সচেতন। কারণ অবশ্যই মনে রাখতে হবে, একজন অসচেতন মানুষের কাছ থেকে রুচিশীলতা বা নান্দনিকতা কিছুই আশা করা যায়না।

আসুন এবার পুরুষের স্মার্টনেস নিয়ে, কয়েকটা গুরুত্বপূর্ণ বিষয় আলোচনা করি।

শার্ট/টি-শার্ট প্যান্ট:
আগেই বলা হয়েছে শার্ট/টি-শার্ট প্যান্ট এর ব্র্যান্ড বা দাম নিয়ে খুব একটা চিন্তা না করলেও চলবে। তবে অবশ্যই গুরুত্ব দিতে হবে, শার্ট/টি-শার্ট প্যান্ট ব্যবহারে রুচিশীলতা ও পরিষ্কার পরিচ্ছন্নতার দিকে।

স্যান্ডেল/জুতা:
মনে রাখতে হবে মেয়েদের পোশাকের অনেক অংশ থাকে যেখানে ছেলেদের কম। তাই ছেলেদের সেই কম অংশের ওপরেই নজর দিতে হয়। স্যান্ডেল/জুতা ছেলেদের স্মার্টনেসের দ্বিতীয় উপকরণ। তাই জুতা নির্বাচনে সচেতন হওয়া জরুরি।

হাত ঘড়ি:
ঘড়ি ব্যবহারের ক্ষেত্রে ভালো ব্র্যান্ডের ঘড়িই থাকা উচিৎ।

বেল্ট:
জামা/টি-শার্ট হোক, ইন করা বা আউট। ব্যবহার করতে পারেন বেল্ট।

পারফিউম:
পুরুষরা এলিগেন্ট ব্যক্তিত্ব ফুটিয়ে তোলার জন্য উডি, অবসেশন, বস, আকুয়া ডি জিও যে কোনো পারফিউম বেছে নিন।

চুল:
অনেকেই চুল এলোমেলো রাখাটা স্মার্টনেস মনে করেন। তবে এলোমেলো চুল আপনার চেহারার সাথে কতটুকু মানায় সে ব্যপারে নিশ্চিত হোন। চুল বেশি বড় হয়ে গেলে, চেহারায় শার্পনেস অনেক ক্ষেত্রেই কমে যায়।

নখ:
মেনিকিওর পেডিকিওর কি শুধুই নারীর জন্য? অবশ্যই না। পরিষ্কার থাকা সবার জন্যই জরুরি। নতুন কারও সঙ্গে পরিচিত হলে প্রথমে আমরা হাত মেলাই। হাতের নখ যদি নোংরা থাকে তবে অস্বস্তি হতেই পারে। নিয়মিত নখ ফাইল করুন। আর পরিস্কার রাখুন।
বিষয়গুলো একটু খেয়াল রাখলে, যেকোনো ছেলেই স্মার্ট আকর্ষনীয় হয়ে উঠবেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Shares