জাবি শিক্ষার্থীর আত্মহত্যা

গলায় ফাঁস দিয়ে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের (জাবি) মীর মশাররফ হোসেন হলের শিক্ষার্থী মোহাম্মদ আদনান আত্মহত্যা করেছেন। নিহত মোহাম্মদ আদনান বিশ্ববিদ্যালয়ের একাউন্টিং অ্যান্ড ইনফরমেশন সিস্টেম বিভাগের ৪১তম ব্যাচের শিক্ষার্থী ছিলেন।

বৃহস্পতিবার রাত ১০টা ১৫ মিনিটের দিকে হলের বি-ব্লকের ৪৫০ নম্বর রুম থেকে ফ্যানের সাথে ঝুলন্ত অবস্থায় তাকে উদ্ধার করা হয়। তার গ্রামের বাড়ি মানিকগঞ্জে। তবে কি কারণে আদনান আত্মহত্যা করেছে তা তাৎক্ষণিকভাবে জানা যায়নি।

প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা যায়, একই বিভাগের ৪৩তম আবর্তনের জুনায়েদ রাত পৌনে ১০টার দিকে ওই রুমের সামনে যায়। এসময় অনেক ডাকাডাকি করেও কোনো সাড়াশব্দ না পেয়ে জুনায়েদ দরজার পাশের জানালা দিয়ে ভেতরে দেখার চেষ্টা করে এবং ফ্যানের সাথে ঝুলন্ত অবস্থায় আদনানকে দেখতে পায়। এই দৃশ্য দেখে জুনায়েদ চিৎকার দিলে আশেপাশের সবাই ছুটে আসে।

এরপর দরজা ভাঙার চেষ্টা করে ব্যর্থ হলে দরজার পাশের জানালা ভেঙে ভেতর থেকে ছিটকিনি খুলে ১০টা ১৫ মিনিটের দিকে আদনানকে উদ্ধার করে সাভার এনাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়া হয়।

মেডিকেলে পৌঁছালে কর্তব্যরত চিকিৎসক ডা. আনোয়ারুল কাদির নাজিম আদনানকে মৃত ঘোষণা করেন। এরপর সেখান থেকে আদনানের লাশ রাত ১১টার দিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের মেডিকেল সেন্টারে নেওয়া হয়।

বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর অধ্যাপক তপন কুমার সাহা মুঠোফোনে জানান, ‘আমি এখন ক্যাম্পাসের বাইরে আছি। আদনানের পরিবারের সাথে এখনো যোগাযোগ করা সম্ভব হয়নি। চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছি। ‘

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Shares