টানা চতুর্থ জয়ে এশিয়া কাপের ফাইনালে বাংলাদেশ

নারী এশিয়া কাপের ফাইনালে খেলার লক্ষ্য নিয়ে মালয়েশিয়ার পথে উড়াল দিয়েছিল বাংলাদেশ নারী ক্রিকেট দল। টুর্নামেন্টের শুরুটা মনঃপুত না হলেও টানা ৪টি ম্যাচ জিতে নিজেদের প্রাথমিক লক্ষ্য পূরণ করেছেন সালমা খাতুন-জাহানারা আলমরা। নিজেদের ইতিহাসে প্রথমবারের মতো এশিয়া কাপের ফাইনালে পৌঁছে গেছে বাংলাদেশ নারী ক্রিকেট দল।

আগের ৩ ম্যাচে টানা জয় পাওয়ায় শনিবার মালয়েশিয়ার বিপক্ষে যেকোন ব্যবধানের জয়ই বাংলাদেশকে এনে দিত ফাইনালের টিকিট। ম্যাচে স্বাগতিকদের ৭০ রানের বড় ব্যবধানে হারিয়েই সহজেই তা অর্জন করে নিয়েছে বাংলাদেশ। বাংলাদেশি নারীদের করা ১৩০ রানের জবাবে ৬০ রানে থেমেছে মালয়েশিয়ার ইনিংস।

মূলত বাংলাদেশ দল প্রথম ইনিংসে ১৩০ রান করার পরই নিশ্চিত হয়ে যায় জয়। কেননা আগের ৪ ম্যাচে মালয়েশিয়ার সর্বোচ্চ সংগ্রহ ছিল ৪৬ রান। তাই তাদের ইনিংসে দেখার ছিল কত রান করতে পারা। বাংলাদেশি বোলারদের নিয়ন্ত্রিত বোলিংয়ে শেষমেশ নির্ধারিত ২০ ওভারে ৯ উইকেট হারিয়ে ৬০ রান করতে পেরেছে মালয়েশিয়া।

স্বাগতিকদের পক্ষে অধিনায়ক উইনফ্রেড দুরাইসিঙ্গাম একাই লড়াই করেন। দলের পক্ষে সর্বোচ্চ ১৭ রান করেন তিনি। এছাড়া ইউসরিয়ান ইয়াকুপ ১১ এবং মাস এলিসা করেন ১৪ রান। বাংলাদেশের পক্ষে বল হাতে সর্বোচ্চ ৩টি উইকেট নেন রোমানা আহমেদ। এছাড়া ১টি করে উইকেট নেন জাহানারা আলম, সালমা খাতুন, খাদিজা তুল কুবরা ও নাহিদা আকতার।

এর আগে কুয়ালালামপুরের কিনরারা একাডেমি ওভাল স্টেডিয়ামে টসে জিতে আগে ব্যাট করে বাংলাদেশ। শামীমা সুলতানা, আয়েশা রহমান, ফাহিমা খাতুনের ব্যাটে ভর করে নির্ধারিত ২০ ওভারে ৪ উইকেট হারিয়ে ১৩০ রান করে নারী দল।

দলের পক্ষে সর্বোচ্চ ৪৩ রানের ইনিংস খেলেন উইকেটরক্ষক ব্যাটসম্যান শামীমা। উদ্বোধনী ব্যাটসম্যান আয়েশার ব্যাট থেকে আসে ৩১ রানের ইনিংস। রানআউট হওয়ার আগে সানজিদা আলম করেন ১৫ রান। শেষ দিকে ১২ বলে ২৬ রানের ঝড়ো ইনিংস খেলে বাংলাদেশ ১৩০ রানের সংগ্রহ এনে দেন ফাহিমা।

রোববার ফাইনাল ম্যাচে শক্তিশালী ভারতের মুখোমুখি হবে বাংলাদেশের নারীরা। বাংলাদেশ সময় দুপুর বারোটায় শুরু হবে ম্যাচটি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *