ট্রাম্পের ‘নোংরা যুদ্ধের’ প্রতিবাদে একাত্ম ৩০০ সংবাদমাধ্যম

সংবাদমাধ্যমের বিরুদ্ধে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের ‘নোংরা যুদ্ধের’ প্রতিবাদে একাত্ম হয়েছে যুক্তরাষ্ট্রের তিন শতাধিক সংবাদমাধ্যম। ইতোপূর্বে মার্কিন সংবাদমাধ্যমের প্রতিবেদনকে ‘ভুয়া সংবাদ’ বলে বিদ্রুপ করেন ট্রাম্প। সাংবাদিকদের তিনি ‘জনগণের শত্রু’ হিসেবেও আখ্যায়িত করেন। সংবাদমাধ্যমের বিরুদ্ধে তার এমন ‘নোংরা যুদ্ধের’ প্রতিবাদে গত সপ্তাহে মার্কিন দৈনিক দ্য বোস্টন গ্লোব সমন্বিত ক্যাম্পেইনের ডাক দেয়। ওই ডাকে সাড়া দিয়ে বৃহস্পতিবার একযোগে ট্রাম্পবিরোধী সম্পাদকীয় প্রকাশ করে যুক্তরাষ্ট্রের তিন শতাধিক সংবাদমাধ্যম।

এসব সম্পাদকীয়তে সংবাদপত্রের স্বাধীনতার পক্ষে প্রচারণা চালানো হয়। এই প্রচারণার নাম দেওয়া হয়েছে ‘ফ্রি প্রেস ক্যাম্পেইন’। প্রচারণায় ‘এনিমি অব নান’ নামের একটি হ্যাশট্যাগও যুক্ত করা হয়েছে।

বিবিসি’র খবরে বলা হয়েছে, প্রাথমিকভাবে ১০০টি জাতীয় পর্যায়ের সংবাদমাধ্যম দ্য বোস্টন গ্লোবের ডাকে সাড়া দিয়েছে। এর পাশাপাশি ছোট আকারের স্থানীয় সংবাদমাধ্যমগুলোও সাড়া দেওয়ায় এই সংখ্যা ৩০০ ছাড়িয়েছে।

মার্কিন সংবাদমাধ্যমগুলোর পাশাপাশি যুক্তরাজ্যভিত্তিক প্রভাবশালী দৈনিক গার্ডিয়ান-এর বোস্টন গ্লোবের এই ডাকে সাড়া দিয়েছে। তালিকায় রয়েছে দ্য নিউ ইয়র্ক টাইমস, দ্য ডালাস মর্নিং নিউজ, দ্য ডেনভার পোস্ট, দ্য ফিলাডেলফিয়া ইনকোয়ারার, শিকাগো সান টাইমসের মতো সংবাদমাধ্যমগুলো।

বোস্টন গ্লোবের সম্পাদকীয়তে শিরোনাম করা হয়েছে, ‘সাংবাদিকরা শত্রু নয়’। এতে উল্লেখ করা হয়, সংবাদপত্রের স্বাধীনতার বিষয়টি ২০০ বছরেরও বেশি সময় ধরে আমেরিকান মূলনীতিগুলোর মধ্যে একটি। কিন্তু এ বিষয়টি এখন ভয়াবহ ঝুঁকির মধ্যে রয়েছে।

দ্য গার্ডিয়ান লিখেছে, ডোনাল্ড ট্রাম্পই যুক্তরাষ্ট্রের প্রথম প্রেসিডেন্ট যিনি দৃঢ়ভাবে গোপনে সংবাদমাধ্যমের ক্ষতি করার নীতি নিয়েছেন। সংবাদমাধ্যমের কাজকে বিপজ্জনক করে তুলেছেন।

এদিকে তিন শতাধিক সংবাদমাধ্যমের একযোগে প্রচারণার দিন বৃহস্পতিবারও একই ভাষায় কথা বলেছেন ট্রাম্প। এদিন টুইটারে দেওয়া এক পোস্টে তিনি লিখেছেন, ‘ফেক নিউজ মিডিয়া হচ্ছে বিরোধী দল। এটা আমাদের মহান দেশের জন্য খুবই খারাপ…. কিন্তু আমরা বিজয়ী হচ্ছি।’ সূত্র: বিবিসি।

Leave a Reply