দলকে মানসিকভাবে চাঙ্গা রাখা আমার প্রথম কাজ: মাশরাফি

ওয়েস্ট ইন্ডিজের মাটিতে টেস্ট সিরিজে বাংলাদেশ ক্রিকেট দল পুরোপুরি বিধ্বস্ত হয়েছে। প্রথম টেস্টে হারের পর দ্বিতীয় টেস্টেও হেরেছে লজ্জাজনকভাবে। বাংলাদেশ দলের এই হতাশার চিত্র দেখে জয়ের ধারার ফেরাতে ওয়েস্ট ইন্ডিজ গেছেন টাইগার অধিনায়ক মাশরাফি বিন মর্তুজা।

ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে ওয়ানেডে সিরিজের আগে ব্যক্তিগত সমস্যা থাকলেও দলের সঙ্গে যোগ দিয়েছেন দলের নির্ভর যোগ্য এই তারকা খেলোয়াড়।

বাংলাদেশ দলকে ওয়ানডে সিরিজে তিনিই নেতৃত্ব দেবেন। তার আগে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে বাংলাদেশকে আশায় ফেরাতে  দায়িত্ব এখন মাশরাফির ঘাড়ে।

মাশরাফি বলেন, ‘আশা জাগানো সবসময়ই কঠিন। এটা সত্য যে, আমার স্ত্রী অসুস্থ। তবে একই সঙ্গে বলছি আমি দলের সঙ্গে যোগ দেওয়ার ব্যাপারে খুব ইতিবাচক ছিলাম। আমি দলের অন্য সদস্যদের সঙ্গে ওয়েস্ট ইন্ডিজ আসতে পারিনি। কারণ তার যে চিকিৎসা চলছিল তা ১৫ তারিখের দিকে শেষ হওয়ার কথা ছিল।

অসুস্থ স্ত্রীকে রেখে দেশের বাইরে খেলতে আসা অবশ্যই সহজ কাজ ছিল না। তবে এর আগেও আমি পরিবারের সদস্যদের অসুস্থতা স্বত্তেও বাইরে খেলতে এসেছি। আমি এই ব্যাপারগুলোর সঙ্গে অভ্যস্ত হয়ে পড়েছি। এখানে আসার পর আমার জন্য ভালো ব্যাপার হলো আমি প্রস্তুতি ম্যাচটা খেলতে পারবো। কারণ বেশ কিছু দিন আগে আমি শেষ প্রতিযোগিতামূলক ম্যাচ খেলেছি।’

তিনি আরও বলেন, ‘প্রস্তুতি ছাড়া কেউ মাঠে খেলতে যায় না। আমি মনে করি, তাদের সর্বোচ্চটা দিয়ে চেষ্টা করেছে।এমনভাবে দল হারলে সকলের মানসিক অবস্থা খুব দুর্বল থাকে এটা সত্য। আমার প্রাথমিক কাজ হচ্ছে দলের সকলকে মানসিকভাবে চাঙ্গা করা। কিভাবে সেটা কাটিয়ে ওঠা যায় তা নিয়ে আমি চিন্তা ভাবনা করছি। কারণ আমরা ওয়ানডে সিরিজে তাদের বিপক্ষে ঘুরে দাঁড়াতে চাই। আমি মনে করি না যে, আমাদের ওয়েস্ট ইন্ডিজের মাটিতে ভালো ব্যাট করার সামর্থ নেই। কিন্তু আমাদের সেটা করে দেখাতে হবে। মানসিকভাবে আমাদের শক্ত হতে হবে। এছাড়া আমাদের সবকিছু ইতিবাচকভাবে ভাবতে হবে।’

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *