দিবা-রাত্রির প্রস্তুতি ম্যাচ খেলবেন টাইগাররা

কয়েকদিন পরেই জিম্বাবুয়ে ও শ্রীলঙ্কাকে নিয়ে মিরপুর শের-ই-বাংলা স্টেডিয়ামে শুরু হচ্ছে ত্রিদেশীয় সিরিজ। দেশের মাটিতে টাইগাররা সবশেষ দিবারাত্রির ওয়ানডে ম্যাচ খেলেছিল ২০১৬ সালের ১২ অক্টোবর চট্টগ্রামে, আর মিরপুরে ৯ অক্টোবর ইংল্যান্ডের বিপক্ষে।

দীর্ঘ ১৫ মাস পর ফের দিবারাত্রির ওয়ানডে ম্যাচ খেলতে যাচ্ছে মাশরাফি বিন মুর্তজার দল। চলতি মাসের ১৫ জানুয়ারি ত্রিদেশীয় সিরিজের প্রথম ম্যাচে প্রতিপক্ষ জিম্বাবুয়ে। মূল মঞ্চে মাঠে নামার আগে প্রস্তুতি ম্যাচ খেলার সুযোগ পাচ্ছেন সাকিব-তামিমরা।

সূচি অনুযায়ী ম্যাচের আগে কোনো প্রস্তুতি ম্যাচ ছিলো না। কৃত্রিম আলোয় অনুশীলন ছিল ৮, ৯ ও ১০ জানুয়ারি। সেই সূচি ঠিক থাকলেও স্কিল ট্রেনিং একদিন কমিয়ে প্রস্তুতি ম্যাচ আয়োজন করতে যাচ্ছে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড। ৬ ও ৯ জানুয়ারি মিরপুরে দিবারাত্রির দুটি ম্যাচ খেলবেন লাল ও সবুজ দল।

জাতীয় দলের টেকনিক্যাল ডিরেক্টর খালেদ মাহমুদ সুজন বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

তিনি বলেন, রিচার্ড হ্যালসল ও সুনীল যোশি বুধবার যোগ দিবেন। কোর্টনি ওয়ালশ আসতে একটু দেরি হচ্ছে। সবাইকে পেয়ে যাব ৫ তারিখের মধ্যে। আর ৬ তারিখে নিজেদের মধ্যে একটা ম্যাচ খেলব ডে-নাইট। আরেকটি ম্যাচ হবে ৯ জানুয়ারি।

৪ জানুয়ারি সকাল ৯টা থেকে বিকেল সাড়ে ৪টা পর্যন্ত চলবে ব্যাট-বলের অনুশীলন। দুদিন অনুশীলনের পর তৃতীয় দিন প্রস্তুতি ম্যাচে নিজেদের ঝালিয়ে নেবেন টাইগাররা।

একদিনের বিশ্রামের পর আবার একদিনের স্কিল ট্রেনিং করবেন ক্রিকেটাররা। পরদিন হবে দ্বিতীয় প্রস্তুতি ম্যাচ। প্রথম ম্যাচটি শুরু হবে দুপুর ১২টায়, পরেরটি দুপুর ১টায়।

১৫ জানুয়ারি থেকে জিম্বাবুয়ে ও শ্রীলঙ্কাকে নিয়ে শুরু হবে ত্রিদেশীয় সিরিজ। আর ৩১ তারিখ থেকে দুই ম্যাচ টেস্ট সিরিজের প্রথমটিতে নামবে বাংলাদেশ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *