দুর্ঘটনায় পড়লে হেলমেটই ডাকবে অ্যাম্বুল্যান্স

বাইকআরোহীদরে হেলমেট পরা বাধ্যতামূলক করলেও পুলিশ ও প্রশাসনের চোখ এড়িয়ে বিনা হেলমেটেই অনেকে যাতায়াত করেন।  কানে ফোন আর বিনা হেলমেটে দুর্ঘটনার সম্ভাবনা আরও বাড়ে।  দুর্ঘটনার কবলে পড়লে হেলমেট অনেকটাই রক্ষাকবচের কাজ করে।

তা জানা সত্ত্বেও অনেকে সচেতনভাবেই হেলমেট পরেন না।  কিন্তু এবার হেলমেট শুধু প্রাথমিকভাবে আরোহীকে রক্ষাই করবে না, দুর্ঘটনায় পড়লে আরও কিছু গুরুত্বপূর্ণ দায়িত্ব পালন করবে।  নিজে থেকেই অ্যাম্বুল্যান্স ডেকে আনতে পারে এটি।

পাকিস্তানে তৈরি হয়েছে এই স্মার্ট হেলমেট।  দেখতে বাকি পাঁচটা হেলমেটের মতোই।  তবে আর পাঁচটা হেলমেটের থেকে অনেক বেশি কাজ করে এটি।  কারণ প্রযুক্তিগতভাবে অনেক এগিয়ে এটি।  যাঁরা নতুন মোটরবাইক চালাচ্ছেন, তাঁদের জন্য এই স্মার্ট হেলমেট আদর্শ।

কারণ এতে রয়েছে স্পিকার, মাইক্রোফোন, ব্লুটুথ রিসিভার, জিপিএস ট্র্যাকার এবং একটি হার্ট রেট মনিটারও রয়েছে।  অর্থাৎ ফোন এলে আলাদা করে কানে যেমন মোবাইল ধরার প্রয়োজন নেই, তেমনই রাস্তা হারিয়ে ফেলার সমস্যাও নেই।  এখানেই শেষ নয়, হেলমেটের মাথায় লাগানো রয়েছে একটি ক্যামেরা এবং দুটি ইন্ডিকেটর। মানে এ হেলমেট মাথায় চাপালে রাস্তার দিক পরিবর্তনের সময় আলাদা করে ইন্ডিকেটর অন করারও দরকার হবে না।

পাশাপাশি দুর্ঘটনায় পড়লে হেলির এসওএস মুডের মাধ্যমে সরাসরি ফোন চলে যাবে পরিবার এবং অ্যাম্বুল্যান্সে।  এই ফোনের জন্য ইন্টারনেট প্রয়োজন হবেনা।

সূত্র ঃ সংবাদপ্রতিদিনডটইন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Shares