দুর্ঘটনায় বীমা সুবিধা পাবে পাঠাও যাত্রী-চালক

‘রাইড’ চলাকালীন সময়ে দুর্ঘটনার কবলে পড়ে হয়ে আহত বা নিহত হলে পাঠাও-এর যাত্রী ও চালক বীমার সুবিধা পাবেন। প্রগতি লাইফের মাধ্যমে এ বীমা সুবিধা দিতে ডটলাইন বাংলাদেশ লিমিটেড ও পাঠাও লিমিটেডের মাধ্যে একটি চুক্তি সই হয়েছে।

রাজধানীর কারওয়ানবাজারে একটি হোটলে আজ (মঙ্গলবার) এক অনুষ্ঠানের মাধ্যমে এ চুক্তিপত্রে সই করেন ডটলাইন বাংলাদেশ লিমিটেডের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা (সিইও) হাসান মেহেদী এবং পাঠাও লিমিটেডের সিইও হুসেইন এম ইলিয়াস।

চুক্তির শর্ত অনুযায়ী, রাইড চলাকালীন সময়ে পাঠাও-এর কোনো যাত্রী বা চালকের দুর্ঘটনাজনিত মৃত্যু, দুর্ঘটনায় আহত হয়ে সম্পূর্ণ অক্ষম, দুর্ঘটনায় আহত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হলে এবং প্রকৃতিগতভাবে মৃত্যু হলে গ্রুপ বীমার আওতায় প্রগতি লাইফ ২৫ হাজার থেকে ১ লাখ টাকা বীমা দাবি দেবে।

চুক্তি সই অনুষ্ঠানে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের উত্তরে পাঠাও-এর সিইও ইলিয়াস বলেন, বীমার সুবিধা পেতে চালক বা যাত্রী কাউকে বীমার প্রিমিয়ামের টাকা দিতে হবে না। বীমা প্রিমিয়ার সকল খরচ বহন করবে পাঠাও।

আরেক প্রশ্নের উত্তরে তিনি বলেন, প্রত্যেকটি রাইডের জন্য বীমার এই সুবিধা দেয়া হবে। রাইডার বা ক্যাপ্টেন একটি রাইড চালু করার পর, সেই রাইড শেষ করার আগে কোনো দুর্ঘটনায় পড়ে যাত্রী বা চালক আহত বা নিহত হলে বীমার সুবিধা পাবেন। তবে কোনো রাইডার রাইড শেয়ার করছেন না- এমন অবস্থায় দুর্ঘটনায় পড়েন তাহলে তিনি বীমার সুবিধা পাবেন না।

যাত্রী বা চালকরা কিভাবে বীমা দাবির টাকা পাবে জানতে চাইলে ইলিয়াস বলেন, যিনি দুর্ঘটনার শিকার হবেন তিনি রাইড হিস্টোরিতে গিয়ে রিপোর্ট করবেন। সাধারণ আহতের ক্ষেত্রে ৭ দিন, হাসপাতালে ভর্তি হলে ১৫ দিন এবং নিহত হলে ৩০ দিনের মধ্যে এই রিপোর্ট করতে হবে। রিপোর্টের ভিত্তিতে সার্বিক বিষয় খতিয়ে দেখে প্রগতি লাইফের মাধ্যমে বীমার টাকা পরিশোধ করা হবে।

আরেক প্রশ্নের উত্তরে প্রগতি লাইফের মহাব্যবস্থাপক (জিএম) এসএম জিয়াউল হক বলেন, ট্র্যাডিশনাল বীমা থেকে বেরিয়ে কিছু করার জন্য আমরা এই প্রোডাক্ট চালু করেছি। এটি গ্রুপ বীমার আওতাধীন একটি প্রোডাক্ট। তবে ট্র্যাডিশনাল যে গ্রুপ বীমা আছে তার থেকে এটি আলাদা।

Leave a Reply