দুর্যোগের পূর্বাভাস দেবে বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট : প্রধানমন্ত্রী

পৃথিবীর কক্ষপথে পাঠানো বাংলাদেশের স্যাটেলাইট বঙ্গবন্ধু-১ থেকে দুর্যোগের পূর্বাভাসও পাওয়া যাবে বলে জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

আজ মঙ্গলবার সকালে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা রাজধানীর বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয় আয়োজিত ‘প্রতিবন্ধিতা ও দুর্যোগ ঝুঁকি ব্যবস্থাপনা’ বিষয়ক দ্বিতীয় আন্তর্জাতিক সম্মেলনের উদ্বোধন করেন। এ অনুষ্ঠানেই তিনি স্যাটেলাইট সম্পর্কে এ কথা জানান।

শেখ হাসিনা বলেন, ‘আমরা এরই মধ্যে আমাদের মহাকাশ জয় করেছি। আমরা বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট-১ উৎক্ষেপণ করেছি। সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ হলো, যেকোনো দুর্যোগের পূর্বাভাস পাওয়া এবং মোকাবিলা করার, প্রস্তুতি নেওয়ার সুযোগটাও আমরা এই স্যাটেলাইটের মাধ্যমে পাব।’

যেকোনো দুর্যোগে প্রতিবন্ধী মানুষ থাকে সবার চেয়ে বেশি ঝুঁকিতে। তাই প্রতিবন্ধিতা ও দুর্যোগ ঝুঁকি মোকাবিলায় বিভিন্ন দেশের অভিজ্ঞতা বিনিময়ের জন্যই ঢাকায় দ্বিতীয়বারের মতো এ আন্তর্জাতিক সম্মেলনের আয়োজন করেছে দুর্যোগ ও ত্রাণ মন্ত্রণালয়।

অনুষ্ঠানে যোগ দিয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা তুলে ধরেন এ বিষয়ে তাঁর সরকারের নেওয়া নানা পদক্ষেপের কথা। তিনি বলেন, যেকোনো দুর্যোগ মোকাবিলায় কী করণীয়, তার পূর্ণাঙ্গ গাইডলাইন তৈরি করেছে বর্তমান সরকার।

উপযুক্ত প্রশিক্ষণ ও সবার সহযোগিতার মাধ্যমে প্রতিবন্ধীরা যে সম্পদে পরিণত হতে পারে, বাংলাদেশ তা প্রমাণ করেছে বলেও জানান প্রধানমন্ত্রী।

সরকারপ্রধান আরো বলেন, ‘দুর্যোগ মোকাবিলায় বাংলাদেশ এখন পারদর্শিতা অর্জন করেছে এবং বিশ্বে রোল মডেল হিসেবে স্বীকৃতি পেয়েছে। কীভাবে দুর্যোগের হাত থেকে মানুষকে বাঁচানো যায়, সেদিকে লক্ষ রেখে টেকসই দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা নীতি আমরা প্রণয়ন করেছি, তা গ্রহণ করেছি এবং বাস্তবায়ন করেছি।’

এ ছাড়া দুর্যোগকালীন প্রতিবন্ধীরা যাতে আলাদা সুবিধা পায়, তার জন্য বাংলাদেশ সরকার কিছু পদক্ষেপ নিয়েছে বলেও প্রধানমন্ত্রী জানান। তবে প্রতিবন্ধীদের জন্য বিশেষ ব্যবস্থা নিতে তিনি আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়কেও আহ্বান জানান।

শেখ হাসিনা বলেন, ‘২০৩০ সালের মধ্যে সাসটেইনেবল ডেভেলপমেন্ট গোল, অর্থাৎ টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রা, সেটা অর্জন করার জন্য বাংলাদেশ বদ্ধপরিকর। সেখানে প্রতিবন্ধীদের জন্য, বিশেষ করে প্রতিবন্ধীরা যেন সব ধরনের কর্মসূচির সুবিধা পায়। আর বিশেষ করে, যেকোনো প্রাকৃতিক দুর্যোগ দেখা দিলে তাদের জন্য যেন বিশেষ ব্যবস্থা থাকে, সেদিকে লক্ষ রেখে আমরা অনেক পদক্ষেপ নিয়েছি। আমি এ ক্ষেত্রে আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের সবাইকে, তাদের উন্নয়ন ও দুর্যোগ ঝুঁকি কর্মসূচিতে প্রতিবন্ধিতা বিষয়ে অন্তর্ভুক্তিকরণের জন্য জোরালো আহ্বান জানাচ্ছি। বাংলাদেশ করেছে, আমরা চাই সকলেই করুক।’

এ ছাড়া কোনো প্রতিবন্ধী যেন সরকারের উন্নয়ন কর্মসূচি থেকে বাদ না পড়ে, সে জন্য দেশে প্রতিবন্ধীদের সঠিক সংখ্যা জানতে বিশেষ আদমশুমারি করা হচ্ছে বলেও জানান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *