ধামরাইয়ে কারখানা থেকে দুই নিরাপত্তাকর্মীর মরদেহ উদ্ধার

ঢাকার ধামরাইয়ের সুতিপাড়া ইউনিয়নের শ্রীরামপুরে একটি পরিত্যক্ত বেভারেজ কারখানা থেকে দুই নিরাপত্তাকর্মীর মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। এ ঘটনায় জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করা হয়েছে অপর এক নিরাপত্তাকর্মীকে। আজ শনিবার বিকেলে শ্রীরামপুরের মীর মোশারফ আলীর মালিকানাধীন সুইডিস বেভারেজ নামের ওই বন্ধ কারখানার ভিতর থেকে রক্তাক্ত মরদেহ দুইটি উদ্ধার করা হয়। এ দুজনকে গতকাল শুক্রবার দিবাগত রাতের কোনো এক সময় হত্যা করা হয়েছে।

নিহত নিরাপত্তাকর্মীরা হলেন- মানিকগঞ্জের রাজা মিয়া (৫০) ও বগুড়ার শহীদুল ইসলাম (৪০)।

ধামরাই থানার পরিদর্শক (তদন্ত) সাঈদ আল মামুন বলেন, রাতে কারখানাটিতে রাজা মিয়া, শহীদুল ইসলাম ও বালাম মোল্লা (৫০) নামে তিনজন নিরাপত্তার দায়িত্বে নিয়োজিত ছিলেন। এ ঘটনায় বালাম মোল্লা রহস্যজনক ভাবে বেঁচে গেছেন। জীবিত বালাম মোল্লা তাঁকে জানিয়েছেন, গতকাল রাতে কারখানার শৌচাগারের টিনের বেড়া ভেঙে কতিপয় দুর্বৃত্ত কারখানায় ঢুকে ওই দুজনকে হত্যার পর পালিয়ে যায়। আজ দুপুরের দিকে খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে প্রাথমিক তদন্তে মনে হয়েছে, পরিত্যাক্ত এ কারখানার ভেতরে নানা রকম অপরাধমূলক কর্মকাণ্ড সংগঠিত হতো। এর জের ধরে এই দুজনকে হত্যা করা হয়ে থাকতে পারে।
পরবর্তীতে তদন্ত সাপেক্ষে এ ঘটনার রহস্য উদঘাটন সম্ভব হবে বলেও জানান তিনি।

পুলিশের এই কর্মকর্তা আরও বলেন, হাতুড়ি বা অন্য কোনো ভারী বস্তু দিয়ে আঘাত করে তাঁদের হত্যা করা হয়েছে। এ ঘটনায় জিজ্ঞাসাবাদের জন্য বালাম মোল্লাকে আটক করা হয়েছে। ময়নাতদন্তের জন্য মরদেহ দুটি ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। এ ঘটনায় ওই কারখানা থেকে কোন মালামাল লুট হয়নি বলে জানা গেছে।

তিনি বলেন, নিহত দুইজন ওই কারখানার ভিতরেই বসবাস করতেন। এ ঘটনায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করার প্রস্তুতি চলছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Shares