নওগাঁ-৪ ভোট যুদ্ধে এগিয়ে মির্জা মাহবুব বাচ্চু

নওগাঁ-৪ সংসদীয় আসন হল বাংলাদেশের জাতীয় সংসদের অন্যতম একটি আসন। এটি জাতীয় সংসদের ৪৯নং আসন। নওগাঁ-৪ আসনটি নওগাঁ জেলার মান্দা উপজেলা নিয়ে গঠিত।

নওগাঁর-৪ আসনে ৯১ এর নির্বাচনে জামায়াত জিতলেও পরের দুবার নির্বাচনে আসনটি চলে যায় বিএনপির দখলে। ২০০৮ এর নির্বাচনে স্বতন্ত্র প্রার্থী আর ২০১৪ নির্বাচনে এ আসনটি বুঝে নেয় আওয়ামী লীগ।

মান্দা উপজেলা নিয়ে গঠিত নওগাঁ-৪ আসন থেকে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন ফরম কিনেছেন বস্ত্র ও পাটমন্ত্রী মুহাম্মদ ইমাজ উদ্দিন প্রামানিক, জেলা আওয়ামী লীগের সংস্কৃতি বিষয়ক সম্পাদক ব্রহানী সুলতান মাহমুদ গামা, জেলা আওয়ামী আইনজীবী পরিষদের সভাপতি আব্দুল বাকী, মান্দা উপজেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি আব্দুল মান্নান, আব্দুল লতিফ শেখ ও উপজেলা আওয়ামী লীগের আইন বিষয়ক সম্পাদক মির্জা মাহবুব বাচ্চু।

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন যতই এগিয়ে আসছে নওগাঁর-মান্দা উপজেলায় সম্ভাব্য প্রার্থীদের গণসংযোগ ততই বৃদ্ধি পাচ্ছে। প্রতিদিনই সম্ভাব্য প্রার্থীরা বাজার-হাট, মোড়ে মোড়ে সাধারণ মানুষের সাথে সৌজন্য সাক্ষাৎ ও মতবিনিময় করছেন বেশ জোরেশোরে। নিজ নিজ দলের নেতা-কর্মীদের সাথে দেখা-সাক্ষাৎ করে যোগাযোগ রক্ষা সহ তাদের কোনও মান-অভিমান থাকলে সেটা ভাঙ্গিযে নিজেদের পক্ষে কাজ করতে উদ্বুদ্ধ করে যাচ্ছেন তাঁরা । চৌদ্দটি ইউনিয়ন সমন্বয়ে গঠিত মান্দা উপজেলার এই সংসদীয় আসন। এখানে ভোটার প্রায় তিন লক্ষের কাছাকাছি। নওগাঁ জেলার ভিআইপি আসন ধরা হয় এটাকেই।

“শেখ হাসিনার সরকার, বার বার দরকার” এই শ্লোগানকে সামনে রেখে ৪৯ নওগাঁ-৪ (মান্দা) আসনে এবারের একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে নৌকা প্রতীকে মনোনয়ন প্রত্যাশী মান্দা উপজেলা আওয়ামী লীগের আইন বিষয়ক সম্পাদক মির্জা মাহবুব বাচ্চু ব্যাপক প্রচার প্রচারণা ও গণসংযোগ চালিয়ে যাচ্ছেন।

জননেত্রী শেখ হাসিনা সরকারের উন্নয়নমূলক কর্মকান্ড তুলে ধরে উপজেলার বিভিন্ন এলাকার গ্রাম-গঞ্জ, হাট-বাজার ও লোকালয়ে সাধারণ জনগণের আস্থা অর্জন করতে এবং প্রার্থীতা জানান দিতে গণসংযোগ করে যাচ্ছেন।

বর্তমান সরকারের উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রাখতে দলমত নির্বিশেষে নৌকা প্রতীকে ভোট প্রার্থনা করছেন তিনি।

তিনি গতবার বস্ত্র ও পাটমন্ত্রী মুহাম্মদ ইমাজ উদ্দিন প্রামানিকে নির্বাচিত করতে সর্বদা মাঠে থেকে দল ও দলীয় প্রার্থীকে সাহায্য করেছিলেন। এবারে আ.লীগের সব মনোনয়ন প্রত্যাশীদের মধ্যে তিনিই একমাত্র ব্যাক্তি যার পিতা-মাতা দুজনই মুক্তিযোদ্ধা।

 

আ.লীগের মনোনায়ন প্রত্যাশী হিসাবে আনুষ্ঠানিক ঘোষনা দেবার পর তিনি মান্দার জনগনের পাশে বিগত ভয়াবহ বন্যায় বানভাসি মানুষের মাঝে ব্যাপক এাণ বিতরন ও গত শীতে শীতার্ত মানুষের মাঝে শীতবস্ত্র বিতরন সহ বিভিন্ন সমাজ সেবামূলক কাজে মান্দার মানুষের মধ্যে সারা জাগিয়ে তাদের মন রক্ষা করে চলছেন।

এভাবেই জনগনের সেবা করে বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলা বির্নিমানের মাধ্যমে জননেএী শেখ হাসিনার হাতকে শক্তিশালী করতে তিনি সকলের দোয়া প্রার্থী।

 

তিনি জানান,নেতাকর্মীদের জন্য যতটুকু সময় ব্যয় করেছি ততটুকু সময় নিজের পরিবারকেও দিইনি। সাংগঠনিক তৎপরতায় এগিয়ে থাকা উপজেলা ও তৃণমূল নেতাকর্মীদের দাবীর প্রেক্ষিতে এ আসন থেকে মনোনয়ন প্রত্যাশিদের দৌড়ের অন্যতম দাবীদার মির্জা মাহবুব বাচ্চু।

জননেত্রী এবার তরুন নেতাদের প্রতি বেশী আস্থাশীল থাকায় এবং দলীয় পছন্দের তালিকায় মির্জা মাহবুব বাচ্চু এর নাম সবার মুখে মুখে হওয়ায় দলীয় বিশ্বস্তসূত্র থেকে জানা গেছে নৌকার মনোনয়ন এ তিনি প্রায় শতভাগ নিশ্চিত।