নাইজেরিয়ায় ভবন ধসে শতাধিক শিশু চাপা পড়ার শঙ্কা

নাইজেরিয়ার লেগোস দ্বীপে একটি বিদ্যালয় ভবন ধসে অন্তত আট শিশুর মৃত্যু হয়েছে। ধ্বংসস্তুপের নিচে আরও প্রায় একশ’ শিশু চাপা পড়ে আছে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে।

লেগোস দ্বীপের ‍ইতা ফাজি আবাসিক এলাকার তিনতলা ওই ভবনের উপরের তলায় একটি প্রাথমিক বিদ্যালয় ছিল বলে জানায় বিবিসি। বিদ্যালয়টিতে শতাধিক শিক্ষার্থী লেখাপড়া করত।

বার্তা সংস্থা রয়টার্সে প্রকাশিত ছবিতে ভবনের ধ্বংসস্তুপ থেকে উদ্ধারকর্মীদের কয়েকটি শিশুকে বের করে আনতে দেখা যায়।

উদ্ধারকর্মীরা ধসে পড়া ভবনের পিলার, কংক্রিটের বিশাল স্ল্যাব এবং দুমড়েমুচড়ে যাওয়া ধাতবখণ্ড সরিয়ে শিশুদের বের করে আনার চেষ্টা করছেন। ভবনটি ধসে পড়ার কারণ তাৎক্ষণিকভাবে জানা যায়নি।

স্থানীয় সময় বুধবার সকাল ১০টার দিকে ভবনটি ধসে পড়ে বলে জানান ন্যাশনাল ইমার্জেন্সি ম্যানেজমেন্ট এজেন্সির মুখপাত্র ইব্রাহিম ফারিনলোই।

“শিশুসহ অনেক মানুষ ধসে পড়া ভবনের নিচে চাপা পড়ে আছে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে।”

২০১৬ সালে নাইজেরিয়ার দক্ষিণাঞ্চলে একটি গির্জার ছাদ ধসে শতাধিক মানুষের মৃত্যু হয়েছিল।