পশ্চিম নাখালপাড়ায় নিহত তিন জঙ্গি, ভুয়া পরিচয়পত্র উদ্ধার

রাজধানীর পশ্চিম নাখালপাড়ায় একটি জঙ্গি আস্তানায় গ্রেনেড বিস্ফোরণে তিন জঙ্গি নিহত হয়েছে। এসময় দুই র‌্যাব সদস্য আহত হয়েছে বলে জানিয়েছেন র‌্যাবের মহাপরিচালক বেনজীর আহমেদ। তিনি আরো জানান, গোয়েন্দা তথ্যের ভিত্তিতে গতকাল রাত দুইটার দিকে জঙ্গি আস্তানা সন্দেহে একটি বাড়ি ঘিরে ফেলে র‌্যাব। র‌্যাবের উপস্থিতি টের পেয়ে তারা বাড়ির ভেতর থেকে তাদের উদ্দেশ্য করে গুলি ও গ্রেনেড ছুঁড়ে।

গোয়েন্দা সংবাদের ভিত্তিতে র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন-র‌্যাব শুক্রবার রাত দুটার দিকে নগরীর পশ্চিম নাখালপাড়ার রুবি ভিলার ৫ম তলায় জঙ্গি আস্তানা সন্দেহে অভিযান চালায়।

এসময়, রাবের উপস্থিতি টের পেয়ে গুলি ছোড়ে ফ্লাটটিতে অবস্থান নেয়া জঙ্গিরা। এসময় কয়েকটি হেন্ড গ্রেনেড ছোড়ে তারা। আহত হন দুই র‌্যাব সদস্য।

এক পর্যায়ে বিকট বিস্ফোরণে স্তব্ধ হয়ে যায় পুরো এলাকা। পরে ঘটনাস্থালে র‌্যাব সদস্যারা স্যুইসাইডাল ভেস্ট পরা তিনটি লাশ উদ্ধার করে। পুরো ফ্ল্যাটটিতে অবিস্ফোরিত গ্রেনেড বিস্ফোরক সরঞ্জাম ও পিস্তল ছড়িয়ে ছিটিয়ে ছিলো। এমনটাই জানান, র‌্যাবের মূখপাত্র মুফতি মাহমুদ খান।

ঘটনাস্থলে র‌্যাবের বম্ব ডিসপোজাল ইউনিট, ফরেন্সিক ইউনিট, ডগ স্কোয়াড ও সিআইডির ক্রাইম সিন ইউনিট উপস্থিত রয়েছে।

জঙ্গি আস্তানায় অভিযানে পরিদর্শনে আসেন র‌্যাবের মহাপরিচালক বেনজির আহমেদ। সাংবাদিকদের তিনি জানান, ভূয়া জাতীয় পরিচয় দেখিয়ে এ মাসের ৪ তারিখ বাড়ি ভাড়া নেয় জাহিদ নামের এক ব্যক্তি। এদের সহযোগিদের খুঁজে বের করতে সব ধরণের প্রচেষ্টা চালাবে আইন শৃঙ্খলাবাহিনী।

র‌্যাব মহাপরিচালক বেনজীর আহমেদ বলেন, ‘এই মুহূর্তে আমাদের বম্ব ইউনিট কাজ শেষ করে নিয়ে এসেছে প্রায়। এখনও একটা সুইসাইডাল ভেস্ট এক জঙ্গির ডেডবডিতে আছে। সেটাকে সরানোর পর আমাদের ফরেনসিক ইউনিট কাজ করবে। আমরা তিনটা ডেডবডি পেয়েছি। যে পরিচয়ে তারা এখানে ঢুকেছিলো, সেখানে একটা নাম আমরা পেয়েছি। জাহিদ নামে একটা এনআইডি দিয়ে তারা এখানে ঢুকেছিলো। ওখানে কিছু ডেটোনেটর ফেয়েছি, কিছু জেল পেয়েছি, কিছু ভেস্ট পেয়েছি।’

বাড়িটিতে থাকা অর্ধশতাধিক বাসিন্দাকে নিরাপদে সরিয়ে নেয়া হয়েছে জানিয়ে র‌্যাব মহাপরিচালক জানান, জিজ্ঞাসাবাদের জন্য বাড়ির মালিক ও কেয়ারটেকারকে তাদের হেফাজতে নেয়া হয়েছে।

Leave a Reply