পাকিস্তানে মার্কিন সাহায্য বন্ধ করলো ট্রাম্প

দীর্ঘদিনের মিত্রদেশ পাকিস্তানের তীব্র সমালোচনা দিয়ে নতুন বছরটি শুরু করেই যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প জানিয়ে দিয়েছেন, আর কোনো মার্কিন সাহায্য তারা পাবে না।

আফগানিস্তানে মার্কিন বাহিনী যেসব সন্ত্রাসীর সঙ্গে লড়ছে পাকিস্তান তাদেরকে আশ্রয়-প্রশ্রয় দিচ্ছে এবং মিথ্যা কথা বলছে বলে ট্রাম্প সোমবার অভিযোগ করেন।

এক টুইটে তিনি লেখেন, “যুক্তরাষ্ট্র ১৫ বছর ধরে বোকার মত পাকিস্তানে ৩৩শ’ কোটি ডলারের বেশি অর্থ সাহায্য দিয়ে এসেছে। বিনিময়ে পায়নি কিছুই। তারা আমাদের নেতাদেরকে বোকা ভেবে মিথ্যা বলেছে, প্রতারণা করেছে। আফগানিস্তানে আমরা যাদের সঙ্গে লড়ছি সেই সন্ত্রাসীদের স্বর্গরাজ্য গড়ে দিয়েছে। সহযোগিতা করেছে কমই। আর না।”

ট্রাম্প কি কারণে পাকিস্তানের ওপর এমন চড়াও হলেন তা তাৎক্ষণিকভাবে পরিষ্কার নয়। তবে ইসলামাবাদ জঙ্গি মোকবেলায় কাঙ্খিত ব্যবস্থা নিচ্ছে না বলে তিনি অনেকদিন থেকেই অভিযোগ করে আসছেন।

গত ২৯ ডিসেম্বরে ‘দ্য নিউ ইয়র্ক টাইমস’ পত্রিকা এক প্রতিবেদনে জানিয়েছিল, ট্রাম্প প্রশাসন পাকিস্তানে ২৫ কোটি ৫০ লাখ ডলারের সাহায্য বন্ধ করে দেওয়ার কথা ভাবছে।

প্রতিবেদনে বলা হয়, যুক্তরাষ্ট্রের কর্মকর্তারা চেষ্টা করেও পাকিস্তানে আটক তালেবান সংশ্লিষ্ট হাক্কানি নেটওয়ার্কের সদস্যের সঙ্গে দেখা করার সুযোগ পাননি। ওই সদস্য হয়ত মার্কিন কোনো জিম্মি সম্পর্কে তথ্য দিতে পারত।

এর আগে গত অগাস্টে ট্রাম্প প্রশাসন পাকিস্তানে ২৫ কোটি ৫০ লাখ অর্থ সাহায্য পাঠাতে দেরী হবে বলে জানিয়েছিল। গতমাসে ট্রাম্প এক বক্তব্যে বলেছিলেন, “যুক্তরাষ্ট্র সরকার প্রতিবছর পাকিস্তানে বড় ধরনের অর্থ সাহায্য দেয়। তাদেরকে প্রতিদান দিতে হবে।”

পাকিস্তান এর প্রতিক্রিয়ায় বলেছে, তারা তাদের মাটি থেকে জঙ্গি নির্মূল করতে সামরিক অভিযান চালিয়েছে। জঙ্গিদের সঙ্গে লড়াই, বোমা হামলা কিংবা অন্যান্য হামলায় ১৭ হাজার পাকিস্তানিও নিহত হয়েছে।

তবে গত নভেম্বরে আফগানিস্তানে যুক্তরাষ্ট্রের শীর্ষ জেনারেল জন নিকোলসন বলেন, ট্রাম্প প্রশাসনের কড়া অবস্থানেও জঙ্গিদের ব্যাপারে পাকিস্তানের আচরণে কোনো পরিবর্তন তার নজরে পড়েনি।

সোমবার ট্রাম্পের টুইটের তাৎক্ষণিক প্রতিক্রিয়ায় পাকিস্তানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী খাজা এম. আসিফ বলেছেন, “আমরা শিগগিরই এ টুইটের জবাব দেব ইনশাল্লাহ… বিশ্বকে আমরা সত্যটা জানাব… প্রকৃত সত্য আর বানোয়াটের মধ্যকার ফারাকটা বিশ্ব জানবে।”

ওদিকে, ওয়াশিংটনে আফগানিস্তানের রাষ্ট্রদূত হামদুল্লাহ মহিব ট্রাম্পের টুইটের প্রতিক্রিয়ায় বলেছেন, যে আফগানরা অনেকদিন ধরে পাকিস্তানের মাটি থেকে সন্ত্রাসীদের চালানো তৎপরতায় দুর্ভোগ পোহাচ্ছে তাদের জন্য এ টুইট একটি আনন্দের বার্তা।

Leave a Reply