পারমাণবিক বিদ্যুৎ প্রকল্পে যুক্ত হচ্ছে রেলপথ

রেল যোগাযোগের আওতায় আসছে রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎকেন্দ্র। নির্মাণাধীন দেশের প্রথম এই পারমাণবিক বিদ্যুৎকেন্দ্র পর্যন্ত ট্রেন নিতে ঈশ্বরদী বাইপাস থেকে ২২ কিলোমিটার রেলপথ নির্মাণ ও সংস্কারের উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। যাতে ব্যয় হবে প্রায় ৩০০ কোটি টাকা।

মঙ্গলবার রাজধানীর রেল ভবনে এ-সংক্রান্ত চুক্তি হয়। প্রকল্পের আওতায় ২২ কিলোমিটার রেলপথ ছাড়াও সাড়ে চার কিলোমিটার লুপ পথ নির্মাণ করা হবে। এ ছাড়া একটি স্টেশন ও প্ল্যাটফর্ম, ১৩টি লেভেলক্রসিং গেট নির্মাণ করা হবে। চুক্তি অনুযায়ী ১৮ মাসের মধ্যে এসব কাজ শেষ হবে। আর পুরো প্রকল্প বাস্তবায়নে ব্যয় ধরা হয়েছে ২৯৭ কোটি ৫৫ লাখ টাকা।

যৌথভাবে এ প্রকল্প বাস্তবায়ন করবে ভারতীয় প্রতিষ্ঠান গ্রিন প্ল্যানেট টেকনোলজি (জিপিটি), বাংলাদেশের স্ট্রাকচারাল ইঞ্জিনিয়ারিং লিমিটেড ও সিসিসিএল। চুক্তিতে রেলওয়ের পক্ষে সই করেন পশ্চিম অঞ্চলের মহাব্যবস্থাপক মজিবুর রহমান। আর তিন ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠানের পক্ষে সই করেন জিপিটির কর্মকর্তা সুভাষ চন্দ্র হাওলাদার।

চুক্তি সই অনুষ্ঠানে রেলমন্ত্রী মুজিবুল হক বলেন, ‘পারমাণবিক বিদ্যুৎকেন্দ্র পর্যন্ত রেল সংযোগ নির্মাণ খুবই জরুরি। বিদ্যুৎ কেন্দ্রের ভারী যন্ত্রপাতি ও মালপত্র পরিবহন করা হবে এ রেলপথ দিয়ে। তাই যথাসময়েই কাজ শেষ করতে হবে।’

চুক্তি সই অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন সিসিসিএলের পরিচালক কাজী নাবিল আহমেদ এমপি, রেল সচিব মোফাজ্জেল হোসেন, রেলওয়ের মহাপরিচালক আমজাদ হোসেন প্রমুখ।

Leave a Reply