পুকুরে ডুবে একই পরিবারের ৩ শিশুর মৃত্যু

ফরিদপুরের ভাঙ্গা উপজেলার নুরুল্যাগঞ্জ ইউনিয়নের কাঁঠালবাড়িয়া গ্রামে পুকুরের পানিতে ডুবে একই পরিবারের তিন শিশুর মৃত্যু হয়েছে।

আজ রোববার দুপুরে এই দুর্ঘটনা ঘটে। নিহতরা হলো জামিল উদ্দিন মাতুব্বরের মেয়ে জিমি আক্তার (০৭), ছেলে সাজ্জাদ (০৩) এবং জামিল উদ্দিন মাতুব্বরের ভাই বাশার মাতুব্বরের মেয়ে রিমি আক্তার (০৬)।

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে ভাঙ্গা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) কাজী সাইদুর রহমান ও স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান মো. তরিকুল ইসলাম জানান, উপজেলার নুরুল্যাগঞ্জ ইউনিয়নের কাঁঠালবাড়িয়া গ্রামে বাড়ির পাশের পুকুর পাড়ে খেলতে গিয়ে পানিতে পড়ে তিন শিশুর মৃত্যু হয়েছে।

তিনি জানান, বাড়ির অন্যরা মসজিদের ইফতার তৈরির কাজে ব্যস্ত ছিলেন। এ সময় সবার অজান্তে শিশুরা পানিতে পড়ে যায়। বাড়ির লোকজন অনেক খোজাখুজি করে না পেয়ে পুকুর পাড়ে গিয়ে দেখতে পেয়ে তাদের উদ্ধার করে সদরপুর জাকের মঞ্জিল হাসপাতালে নিয়ে গেলে কত্যর্বরত চিকিৎসক তাদের মৃত ঘোষণা করেন।

বাশার মাতুব্বরের অপর ভাই এনামুল মাতুব্বর ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, জামিল উদ্দিন মাতুব্বর সদরপুর উপজেলা সদরে ফলের ব্যবসা করার কারণে তার স্ত্রী, ছেলে-মেয়েকে নিয়ে সদরপুরে থাকেন। বাশার মাতুব্বর ফরিদপুরে ফুচকা বিক্রি করেন। তবে তার পরিবার কাঁঠালবাড়ী গ্রামে থাকে। জামিল উদ্দিন মাতুব্বর বাড়ির মসজিদে ইফতার দেওয়ার জন্য ছেলে, মেয়ে ও স্ত্রীকে নিয়ে বাড়িতে আসেন।

মৃত রিমি কাঁঠালবাড়িয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিশু শ্রেণির ছাত্রী। তার চাচাত বোন জিমি সদরপুরের কিন্ডারগার্টেনে নার্সারিতে পড়ে।

Leave a Reply