প্রথম বার জিমে যাচ্ছেন?

 

নতুন বছরে জিমে যাওয়ার রেজলিউশন নিয়েছেন? এই প্রথম বার? নাকি নতুন বছরে আগে কয়েক কিলো ঝরিয়ে স্লিম অ্যান্ড ট্রিম হতে চাইছেন? জিমে যাওয়ার মোটিভেশন যাই হোক না কেন ফার্স্ট টাইমার বা বিগিনারদের কিছু বিষয় জানা উচিত। প্রথম বার জিমে যাওয়ার আগে দেখে নিন ফিটনেস গাইড।

 

জিম শুরু করার আগে নিজের শরীরে কোনও নিউট্রিশন ডেফিসিয়েন্সি রয়েছে কিনা পরীক্ষা করে নিন। যেমন ভিটামিন ডি বা ক্যালসিয়ামের ঘাটতি থাকলে ওয়ার্কআউটের ফলে আঘাত পেতে পারেন, রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতাও কমে যেতে পারে। ম্যাগনেশিয়ামের ঘাটতি থাকলে পেশীতে টান ধরতে পারে এবং তা দীর্ঘক্ষণ স্থায়ী হতে পারে।

 

ওয়ার্কআউটের আগে খাবার

আনপ্রসেসড সুষম খাবার সবচেয়ে প্রয়োজনীয়। ওয়ার্কআউটের আগে কার্বোহাইড্রেট ও প্রোটিনের কম্বিনেশনযুক্ত খাবার খেলে তা এনার্জির মাত্রা বাড়াতে সাহায্য করবে। ফল ও বাদাম বাটার অথবা ফল ও দই এই সময়ের জন্য খুবই ভাল খাবার। সিদ্ধ রাঙাআলু ও একমুঠো বাদাম খেয়েও এক্সারসাইজ শুরু করতে পারেন।

 

হাইড্রেশন

ওয়ার্কআউট করার আগে নিজেকে হাইড্রেটেড রাখা খুবই গুরুত্বপূর্ণ। ওয়ার্কআউট শুরু করার অন্তত ২-৩ ঘণ্টা আগে থেকে জল খেতে শুরু করুন। যদি রোদে ওয়ার্কআউট করেন বা খুব বেশি ঘামার প্রবণতা থাকে, তা হলে অন্তত ৫০০-৬০০ মিলিলিটার জল খেয়ে তবেই ওয়ার্কআউট শুরু করুন।

বিগিনারদের ডায়েটারি সাপ্লিমেন্ট না নেওয়ারই পরামর্শ দিচ্ছেন বিশেষজ্ঞরা। সাধারণত শরীরে কোনও বিশেষ উপাদানের ঘাটতি থাকলে বা হজমের সমস্যার কারণে শরীরে পর্যাপ্ত পুষ্টি শোষিত না হলে ডায়েটারি সাপ্লিমেন্টে প্রেসক্রাইব করা হয়।

‘এই ধরনের খবর আপনার ইনবক্সে সরাসরি পেতে এখানে ক্লিক করুন’

যারা বিয়ের আগে বা পরে ওজন কমানোর জন্য প্রথম বার জিম করছেন অবশ্যই ডায়েটে রাখুন বাদাম। পর্যাপ্ত জল খান, ঘুমোন এবং নিজেকে শান্ত রাখুন।

Leave a Reply