প্রধানমন্ত্রীর বক্তব্য নাকচ করেছে যুক্তরাষ্ট্র

পদ্মা সেতুতে বিশ্বব্যাংকের অর্থায়ন বন্ধ করতে যুক্তরাষ্ট্রের প্রভাব খাটানোর অভিযোগ নাকচ করেছে ঢাকায় মার্কিন দূতাবাস। যুক্তরাষ্ট্রের ওই সময়ের পররাষ্ট্রমন্ত্রীর নির্দেশে বিশ্বব্যাংকের প্রেসিডেন্ট বোর্ডের অনুমোদন ছাড়াই পদ্মা সেতুতে অর্থায়ন বন্ধ করে দিয়েছিলেন বলে অভিযোগ করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তিনি তার সাম্প্রতিক মালয়েশিয়া সফর সম্পর্কে অবহিত করতে শুক্রবার এক সংবাদ সম্মেলনে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে সম্পর্কের বিষয়ে আলোকপাত করেন।তার জবাবে মার্কিন দূতাবাস বলেছে, যুক্তরাষ্ট্র পদ্মা সেতুর সমর্থক ছিল এবং বিশ্বব্যাংকের সঙ্গে এ প্রকল্প নিয়ে এগিয়ে যেতে যুক্তরাষ্ট্র প্রচেষ্টা চালিয়েছে।

ঢাকায় মার্কিন দূতাবাসের মুখপাত্র মনিকা এল শাই শুক্রবার রাতে যুগান্তরকে বলেন, সত্যিকার ঘটনা হল- বাংলাদেশের উন্নয়ন এবং আঞ্চলিক কানেকটিভিটির গুরুত্ব অনুধাবন করে পদ্মা বহুমুখী সেতু প্রকল্পকে সামনে এগিয়ে নিতে বাংলাদেশ সরকারের সঙ্গে বিশ্বব্যাংকের কাজ করার একটা উপায় খুঁজে পাওয়ার জোরালো প্রবক্তা ছিল যুক্তরাষ্ট্র। মনিকা অবশ্য যুক্তরাষ্ট্র কীভাবে বিশ্বব্যাংকের অর্থায়নে পদ্মা সেতু প্রকল্প নিয়ে এগিয়ে যেতে চেষ্টা করেছে সে বিষয়ে বিস্তারিত কোনো বর্ণনা দেননি।

যুক্তরাষ্ট্র ৫ জানুয়ারির নির্বাচন যাতে না হয় সে জন্য সব রকমের চেষ্টা করেছে বলে দাবি করেন প্রধানমন্ত্রী। এ সম্পর্কে মার্কিন দূতাবাসের মুখপাত্র বলেন, নির্বাচন নিয়ে যুক্তরাষ্ট্রের অবস্থান সবার জানা। মার্কিন সহকারী পররাষ্ট্রমন্ত্রী নিশা দেশাই বিসওয়াল এ নিয়ে পরিষ্কার মতপ্রকাশ করেছেন। তারপর নতুন মার্কিন রাষ্ট্রদূত মার্সিয়া বার্নিকাট তার সিনেট শুনানিতে এ ব্যাপারে বলেছেন। সর্বশেষ নিশা বিসওয়াল বলেছেন, নির্বাচন কবে হবে সেটা বাংলাদেশের জনগণ নির্ধারণ করবে।

যুগান্তর

Leave a Reply