প্রধান বিচারপতি হচ্ছেন ওয়াহহাব মিঞা

শেষ পর্যন্ত প্রধান বিচারপতি হিসেবে ওয়াহাব মিঞাই থাকছেন। জ্যৈষ্ঠতার ভিত্তিতে তাকেই প্রধান বিচারপতি হিসেবে রেখে দেয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার।

সোমবার সরকারের দ্বায়িত্বশীল বিভিন্ন সূত্র এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

সূত্রমতে, সাবেক প্রধান বিচারপতি সুরেন্দ্র কুমার সিনহা পদত্যাগ করার পর তাকে ভারপ্রাপ্ত বিচারপতির দায়িত্ব দেয়া হয়।

১৯৯৯ সালের ২৪ অক্টোবর হাইকোর্টে অস্থায়ী বিচারপতি হিসেবে নিয়োগ পান ওয়াহহাব মিঞা। বর্তমানে তিনি আপিল বিভাগের দায়িত্বে রয়েছেন। ২০১৮ সালের ১০ নভেম্বর পর্যন্ত প্রধান বিচারপতির দায়িত্ব পালন করবেন তিনি।

সূত্র জানায়, সরকারের সঙ্গে তার চিন্তাধারার পার্থক্য থাকায় তাকে প্রধান বিচারপতি নিয়োগ দেওয়ার ব্যাপারে দ্বিতম পোষণ করেছিলেন অনেকে। এক্ষেত্রে আপিল বিভাগের দ্বিতীয় জ্যেষ্ঠ বিচারপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেনই ছিলেন প্রথম পছন্দ। কিন্তু নিয়ম অনুযায়ী, বয়োজ্যেষ্ঠ বিচারপতিই হবেন প্রধান বিচারপতি। তাই এখন প্রধান বিচারপতি পদের প্রধান দাবিদার আবদুল ওয়াহহাব মিঞা। বিচারপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেনকে প্রধান বিচারপতির দায়িত্ব দিলে সুপ্রিম কোর্টের জ্যেষ্ঠতা লঙ্গন হতো। তাই সরকার ওয়াহহাব মিঞাকেই প্রধান বিচারপতির দায়িত্ব দিচ্ছেন।

আগামী কয়েক দিনের মধ্যেই রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদ এ বিষয়ে নিশ্চিত করবেন বলে জানিয়েছেন সংশ্লিষ্টরা। তবে ওয়াহহাব মিঞার মেয়াদকাল শেষ হলে সৈয়দ মাহমুদ হোসেনই হবেন প্রধান বিচারপতি। তিনি দায়িত্ব পালন করবেন ২০২১ সালের ৩০ ডিসেম্বর পর্যন্ত।

Leave a Reply