ফাইনালে সাকিবের খেলা নিয়ে সংশয়!

শিরোপা জয়ের লক্ষ্যে উইন্ডিজের মুখোমুখি হবে বাংলাদেশ। তবে ফাইনালের আগে টাইগারদের চিন্তার কারণ সাকিব আল হাসানের ইনজুরি। সাইড স্ট্রেনের জন্য অন্তত এক সপ্তাহের বিশ্রামে থাকতে হবে বিশ্বসেরা অলরাউন্ডারকে। তাই সাকিবকে ছাড়াই ফাইনালের পরিকল্পনা সাজাচ্ছেন মাশরাফি। এখন পর্যন্ত আসরে অপরাজিত থাকা বাংলাদেশ, ধারাবাহিক ক্রিকেট খেলে শিরোপা জিততে প্রত্যয়ী। ডাবলিনের ম্যালাহাইডে ম্যাচটি শুরু হবে শুক্রবার (১৭ মে) বিকাল পৌনে চারটায়।

বাংলাদেশ দল আয়ারল্যান্ডে পা রাখার পর থেকেই মাশরাফি-সাকিবদের নিয়ে নতুন করে স্বপ্ন দেখছে শুরু করেছে সমর্থকরা। বিরুদ্ধ কন্ডিশনে প্রতিপক্ষকে শাসন করে টানা তিন ম্যাচে জয়। বিশ্বকাপের আগে ত্রিদেশীয় সিরিজের ফাইনাল টাইগাররা নিশ্চিত করেছে বেশ আয়েশী ভঙ্গিতেই।

কিন্তু ফাইনাল মানেই তো বাংলাদেশের জন্য স্বপ্ন ভঙ্গের বেদনা। শিরোপার কাছে গিয়েও বারবার ফিরতে হয়েছে খালি হাতে। তবে এবারের দলটা যেন প্রতিজ্ঞাবদ্ধ দীর্ঘ অপেক্ষার সমাপ্তি টানতে।

আগের তিন ম্যাচে বাংলাদেশ যেভাবে খেলেছে তাতে টিম ম্যানেজম্যান্টের দল নির্বাচনে মধুর সমস্যায় পড়ার কথা। সেটা পড়েছেও। যদিও এখন চিন্তা সাকিবকে নিয়ে। আয়ারল্যান্ডের বিপক্ষে সাইড স্ট্রেন হওয়া এই অলরাউন্ডারের ফাইনালে খেলা নিয়ে আছে সংশয়। সামনে বিশ্বকাপ তাই ঝুকি নিতে চাইবে না দল। এছাড়াও আগের ম্যাচে খেলা একাদশে আসবে বেশ কিছু পরিবর্তন।

সাকিবের স্থানে ভাবনায় আছেন লিটন দাস। ফিরবেন মোস্তাফিজ-মিঠুন-মিরাজরা। তামিমের সঙ্গে ওপেনিং করবেন সৌম্য। টপ অর্ডারের ফর্ম দিচ্ছে স্বস্তি। ক্যারিবিয়াবদের বিপক্ষে আগের দুই ম্যাচে জয় পেলেই আত্মতুষ্টি নেই দলে। জয়ের ধারাবাহিকতা ফাইনালেও ধরে রাখতে চান টাইগার দলপতি।

মাশরাফি বিন মোর্ত্তজা বলেন, আমরা টানা কয়েকটি ম্যাচ জিতেলেও, এখনো উন্নতির জায়গা আছে। যে কোনো টুর্নামেন্টের ফাইনালই বড় ম্যাচ। ওদেরকে হারিয়ে দল বেশ আত্মবিশ্বাসী। ফাইনালেও জয় তুলে নিয়ে শিরোপা জিততে পারাটা দলের জন্য হবে বড় অর্জন।

ওয়েস্ট ইন্ডিজের চিত্রটা ঠিক বিপরীত। বড় জয় দিয়ে সিরিজ শুরু করলেও বাংলাদেশ তাদের কাছে বড় ধাধার নাম। যার উত্তর এখনো খুজে পাচ্ছে না জেসন হোল্ডার বাহিনী। দলের টপ অর্ডার ধারাবাহিক পারফর্ম করলেও মিডল অর্ডার আর বোলারদের ব্যর্থতায় ভুগছে ২ বারের বিশ্বচ্যাম্পিয়নরা। ৪ ম্যাচে প্রায় ৪০০ রান শেই হোপের। সুনীল আমব্রিসও আছেন ছন্দে। ফাইনালে বোলিংয়ে অভিজ্ঞতা বাড়াতে ফাইনালে ফিরছেন শ্যানন গ্যাব্রিয়েল।

বাংলাদেশের মত উইন্ডিজ ক্রিকেটও সাফল্যের তৃষ্ণার্ত। টেস্ট খেলুড়ে দলগুলোর বিপক্ষে খেলা কোনো বহুদেশীয় ওয়ানডে সিরিজের ট্রফি সবশেষ তারা জিতেছিলো ২০০৪ সালে। বিশ্বকাপের আগে তারাও চাইবে শিরোপা উৎসব করে আত্মবিশ্বাস বাড়াতে।