ফার্স্ট লেডির মতো হতে ৯ বার প্লাস্টিক সার্জারি

মার্কিন নারীদের মধ্যে ফার্স্ট লেডি মেলানিয়া ট্রাম্পের মতো চেহারা পেতে হিড়িক পড়ে গেছে। আর এ ট্রেন্ডে পা দিয়ে প্লাস্টিক সার্জনের ছুরির নিচে নয়বার গিয়েছেন এক মার্কিন নারী।

টেক্সাসের বাসিন্দা ওই নারীর নাম ক্লডিয়া সিয়েরা। তিনি সার্জারি করেন হাউস্টনের প্লাস্টিক সার্জন ড. ফ্রাঙ্কলিন রোজ এর কাছে।

সম্প্রতি তিনি ফক্স নিউজেও সাক্ষাৎকার দিয়েছেন। কেন তিনি মেলানিয়ার মতো চেহারা চান, এ প্রশ্নে ক্লডিয়া বলেন, মেলানিয়াকে তিনি তার অনুপ্রেরণা মনে করেন। আর তাই তার মতো চেহারা চান।

টেক্সাসের হাউস্টনের এ নারী আরও বলেন, নিজেকে ফার্স্ট লেডির মতো অনুভব করতে চান। আর তাই মঙ্গলবার এক সার্জারি প্রক্রিয়ার মধ্য দিয়ে যান এ নারী। সার্জারির আগে এক বিবৃতিতে সিয়েরা বলেন, ‘আমার কাছে মেলানিয়া হচ্ছেন ক্ষমতা ও সামর্থ্যরে মূর্ত প্রতীক।

তিনি আমাদের ফার্স্ট লেডি এবং আমি আমার চেহারা তার মতো করতে এবং আমার আমিকে আরও ভালো করে উপস্থাপন করতে চাচ্ছি। ’

সিয়েরার এ নতুন চেহারা ইনসাইড এডিশন নামের একটি ম্যাগাজিনের পাতায় দেখা যাবে। প্লাস্টিক সার্জারির জগতে বর্তমান ফার্স্ট লেডি মেলানিয়া নতুন ট্রেন্ড হিসেবে হাজির হয়েছেন। এ ক্ষেত্রে সাবেক মডেল মেলানিয়ার চেহারা এতই জনপ্রিয় যে সার্জন ফ্রাঙ্কলিন রোজ ‘মেলানিয়া মেকওভার’ নামে একটি নতুন আইটেম চালু করেছেন।

রোজ বলেন, ইভাঙ্কা ট্রাম্পের চেহারা পাওয়ার দাবি নিয়ে অনেকেই আমার অফিসে আসেন। অতএব কেউ যদি মেলানিয়ার চেহারা চান, তাতে অবাক হওয়ার কিছু নেই। কারণ তিনি (মেলানিয়া) এমনিতেই গর্জিয়াস।

মেলানিয়া জন্মসূত্রে মার্কিন নাগরিক নন। ১৯৭০ সালে স্লোভেনিয়ায় জন্ম নেন তিনি। এরপর ২০০১ সাল থেকে যুক্তরাষ্ট্রে বসবাস শুরু করেন। ২০০৫ সালে মার্কিন ধনকুবের ট্রাম্পের সঙ্গে বিয়ে হওয়ার আগ পর্যন্ত তিনি একজন ফ্যাশন মডেল ছিলেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Shares