ফেরদৌসের ভিসা বাতিল, ভারত ছাড়ার নির্দেশ

জনপ্রিয় চলচ্চিত্র অভিনেতা ও তারকা অভিনয় শিল্পী চিত্রনায়ক ফেরদৌসের ভিসা বাতিল করেছে ভারত। পাশাপাশি তাকে অনতিবিলম্বে নিজ দেশে (বাংলাদেশে) ফিরে যাওয়ার নির্দেশ দিয়েছে নয়াদিল্লী। তাছাড়া চিত্রনায়ক ফেরদৌসকে কালো তালিকাভুক্ত করেছে ভারতের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়। ভারতের চলমান লোকসভা নির্বাচনে তৃণমূল কংগ্রেসের এক প্রার্থীর পক্ষে নির্বাচনী প্রচারণায় অংশ নেয়ায় এমন সিদ্ধান্ত নিয়েছে ভারত। ভারতীয় সংবাদমাধ্যম হিন্দুস্তান টাইমস ও এনডিটিভির খবরে এ কথা বলা হয়েছে।

এ বিষয়ে ভারতের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী রাজনাথ সিং বলেছেন, ফেরদৌস আহমেদের ভিসা–সংক্রান্ত আচরণ লঙ্ঘনের প্রতিবেদন পাওয়ার পরে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় তার ভিসা বাতিল করেছে। এ ছাড়া তাকে দেশ ত্যাগের নির্দেশ দেয়া হয়েছে। সেই সঙ্গে তাকে (ফেরদৌসকে) কালো তালিকাভুক্ত করা হয়েছে।

এর আগে পশ্চিমবঙ্গের ক্ষমতাসীন রাজনৈতিক দল তৃণমূল কংগ্রেসের হয়ে নির্বাচনী প্রচারণায় অংশ নিয়ে বিপাকে পড়েন বাংলাদেশি চিত্রনায়ক ফেরদৌস আহমেদ। ভারতের ক্ষমতাসীন দল ভারতীয় জনতা পার্টি (বিজেপি) দেশটির নির্বাচন কমিশনের কাছে এ নিয়ে অভিযোগ করে। ভিসা আইনের শর্ত লঙ্ঘন করে নির্বাচনী প্রচারণায় অংশ নেয়ায় বাংলাদেশি এই চিত্রনায়ককে গ্রেফতারের দাবিও জানায় বিজেপির পশ্চিমবঙ্গ শাখা।

ভারতের সরকারি সংবাদ সংস্থা প্রেস ট্রাস্ট অব ইন্ডিয়া (পিটিআই) বলছে, অন্য দেশের নাগরিক তৃণমূল কংগ্রেসের হয়ে নির্বাচনী প্রচারে অংশ নিচ্ছে; এমন অভিযোগ পাওয়ার পর ভারতের কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় রিজিওনাল ফরেনার্স রেজিস্ট্রেশন অফিসের কাছে এ বিষয়ে ব্যাখ্যাসহ প্রতিবেদন চেয়েছে।

অন্যদিকে ভারতীয় সংবাদমাধ্যম ইকোনমিকস টাইমস জানায়, অন্য দেশের নাগরিক তৃণমূল কংগ্রেসের হয়ে লোকসভা নির্বাচনের প্রচারে অংশ নিচ্ছে; এমন অভিযোগ পাওয়ার পর ভারতের কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় মঙ্গলবার রিজিওনাল ফরেনার্স রেজিস্ট্রেশন অফিসের কাছে এ বিষয়ে ব্যাখ্যাসহ প্রতিবেদন চেয়েছে।