বাংলায় খোলা যাবে ইমেইল একাউন্ট

বাংলা ভাষায় ই-মেইল ঠিকানা যুক্ত করার ঘোষণা দিয়েছে বিশ্বের বৃহত্তম সফটওয়্যার নির্মাতা প্রতিষ্ঠান মাইক্রোসফট। একুশে ফেব্রুয়ারি আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উপলক্ষে এ ঘোষণা দিয়ে চলতি বছরের ২১ ফেব্রুয়ারি মাইক্রোসফট ইন্ডিয়ার এক ব্লগ পোস্টে এ তথ্য জানানো হয়েছে। ওই ব্লগ পোস্টে ই-মেইল ঠিকানায় ১৫টি ভাষা সমর্থনের কথা বলা হয়। এর মধ্যে রয়েছে বাংলা, হিন্দি, বোড়ো, ডগরি, কনকানি, মৈথিলি, মারাঠি, নেপালি, সিন্ধি, গুজরাটি, মণিপুরি, পাঞ্জাবি, তামিল, তেলেগু ও উর্দু।

মাইক্রোসফট জানিয়েছে, আউটলুক অ্যাকাউন্টের ক্ষেত্রে স্থানীয় ভাষার ই-মেইল ঠিকানা ব্যবহার করা যাবে। পিসি, আউটলুক ডটকম, অ্যান্ড্রয়েড ও আইওএস প্ল্যাটফর্মে আউটলুক অ্যাপসে স্থানীয় ভাষায় ই-মেইল আদান-প্রদান করতে পারবেন। মাইক্রোসফটের অন্যান্য সেবা, যেমন: অফিস ৩৬৫, এক্সচেঞ্জ অনলাইন, এক্সচেঞ্জ অনলাইন প্রোটেকশন ও ই-মেইল অ্যাপসের ক্ষেত্রেও নতুন সেবাটি পাওয়া যাবে।

মাইক্রোসফটস ই-মেইল অ্যাড্রেস ইন্টারন্যাশনালাইজেশনের (ইএআই) অংশ হিসেবে নতুন ভাষা সমর্থনের এ বিষয় যুক্ত করা হচ্ছে বলে জানিয়েছে মাইক্রোসফট। মাইক্রোসফট বলছে, ভারতীয় অঞ্চলের ভাষাগুলো অনলাইনে খুব বেশি তুলে ধরা হয় না। ভারতে ৪৪৭টি ভাষায় কথা বলা হয়। তবে শীর্ষ ৫০টি শীর্ষ ডিজিটাল ভাষার তালিকায় একটিও ভারতীয় ভাষা নেই। কিন্তু ইন্টারনেট ব্যবহারকারীর ৮ শতাংশ ভারতীয়।

মাইক্রোসফট ইন্ডিয়ার প্রধান পরিচালন কর্মকর্তা মিতুল প্যাটেল বলেছেন, প্রযুক্তি গ্রহণের ক্ষেত্রে ভাষা যেন কোনো বাধা না হয়, সেটি নিশ্চিত করা হয়েছে। ১৫টি ভাষায় ই-মেইল তৈরির সুবিধা আধুনিক যোগাযোগ তৈরিতে তারই একটি পদক্ষেপ। এতে ই-মেইল ব্যবহার আরও সহজ হবে। যেসব ভাষা আন্তর্জাতিক এনকোডিং মান ইউনিকোড সমর্থন করে, সেগুলো যুক্ত হয়েছে। ইন্টারনেট আরও বেশি ভাষায় ব্যবহারোপযোগী করতে ইন্টারনেট করপোরেশন অব অ্যাসাইনড নেমস অ্যান্ড নাম্বারসের (আইসিএএনএন) প্রচেষ্টার সঙ্গী মাইক্রোসফট।

উল্লেখ্য, ১৯৯৮ সাল থেকেই ‘প্রজেক্ট ভাষা’ শুরু করে মাইক্রোসফট। এর উদ্দেশ্য ছিল স্থানীয় ভারতীয় ভাষাগুলোর মাধ্যমে কম্পিউটিং সেবা সরবরাহ করা। এরই ধারাবাহিকতায় মাইক্রোসফটের নতুন এ সেবা।

Leave a Reply