বেসরকারি প্রতিষ্ঠানে শিক্ষক নিয়োগে জাতীয় মেধাতালিকা করতে হবে

বেসরকারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে শিক্ষক নিয়োগের লক্ষ্যে নিবন্ধন পরীক্ষায় উত্তীর্ণদের নিয়ে একটি জাতীয় মেধা তালিকা প্রণয়নের নির্দেশ দিয়েছে হাইকোর্ট। রায়ের অনুলিপি পাওয়ার ৯০ দিনের মধ্যে সরকারকে এ তালিকা করতে বলা হয়েছে। ওই তালিকা বেসরকারি শিক্ষক নিবন্ধন ও প্রত্যায়ন কর্তৃপক্ষের (এনটিআরসিএ) ওয়েবসাইটে প্রকাশ করতে বলা হয়েছে।

বিচারপতি কাজী রেজা-উল হক ও বিচারপতি মোহাম্মদ উল্লাহর সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্টের ডিভিশন বেঞ্চের দেয়া পূর্ণাঙ্গ এই রায় মঙ্গলবার প্রকাশ পেয়েছে। রায়ে বিভাগ, জেলা, উপজেলা নামে পৃথক কোনো তালিকা করা যাবে না বলেও রায়ে উল্লেখ করা হয়েছে। গত ১৪ ডিসেম্বর সাত দফা নির্দেশনা দিয়ে হাইকোর্ট এ রায় ঘোষণা করে।

রায়ে বলা হয়, শিক্ষক নিবন্ধন পরীক্ষায় উত্তীর্ণদের সনদ প্রদান করতে হবে। নিয়োগ না হওয়া পর্যন্ত ওই সনদ বহাল থাকবে। এনটিআরসিএ প্রতিবছর মেধা তালিকা হালনাগাদ করবে। সম্মিলিত মেধা তালিকা অনুযায়ী রিট আবেদনকারী এবং অন্যান্য আবেদনকারীদের নামে নিয়োগের উদ্দেশ্যে সনদ জারি করবে। এনটিআরসিএ কোনো শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বরাবর যদি কোনো সুপারিশ করে তবে কপি পাওয়ার ৬০ দিনের মধ্যে তা বাস্তবায়ন করতে হবে। অন্যথায় ওই শিক্ষা প্রতিষ্ঠান পরিচালনার জন্য গঠিত ব্যবস্থাপনা কমিটি বা গভর্নিং কমিটি বাতিল করবে সংশ্লিষ্ট শিক্ষা বোর্ড। এমনকি সরকার বেসরকারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে চাকরিতে প্রবেশের বয়সসীমা নির্ধারণ করতে শিগগিরই পদক্ষেপ নেবে বলে নির্দেশনা দিয়েছে আদালত।

বেসরকারি শিক্ষক নিবন্ধন পরীক্ষা গ্রহণ-প্রত্যায়ন বিধিমালার ২০০৬ এর বিধি ৯ এর উপ-বিধি ২(গ) বলা হয়েছে, লিখিত ও মৌখিক পরীক্ষায় উত্তীর্ণ প্রার্থীদের উপজেলা, জেলা এবং জাতীয় ভিত্তিক মেধাক্রম অনুসারে ফলাফলের তালিকা প্রণয়ন ও প্রকাশ করা হবে। এই বিধি চ্যালেঞ্জ করে হাইকোর্টে রিট দায়ের করেন সিরাজগঞ্জের লিখন কুমার সরকার, জামালপুরের সেলিম রেজাসহ ১৭২ জন নিবন্ধন সনদধারী শিক্ষক। পরে আরও বিভিন্ন সময়ে অনেক সনদধারী রিট করেন। ওইসব রিটের চূড়ান্ত শুনানি শেষে হাইকোর্ট উপরোক্ত রায় দেয়।

ইত্তেফাক

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *