ব্রাজিলিয়ান আর্থারকে কিনে নিল বার্সা

ব্রাজিলিয়ান ক্লাব গ্র্যামিও থেকে ৪০ মিলিয়ন ইউরোতে তরুণ মিডফিল্ডার আর্থার মেলোকে কিনে নিয়েছে স্প্যানিশ ক্লাব বার্সেলোনা। আর্থারের সাথে বার্সার চুক্তিটি ছয় বছর মেয়াদি।

 

গ্র্যামিও তাদের সেরা মিডফিল্ডার আর্থারকে চলতি বছরের শেষ পর্যন্ত রেখে দিতে চেয়েছিলো, কিন্তু সোমবার (৯ জুলাই) কাতালান ক্লাবটি ব্রাজিলের উঠতি এই তারকাকে কিনে নেওয়ার ঘোষণা দিয়েছে।

২১ বছর বয়সী আর্থারকে দলে টানতে শুরুতে ৩১ মিলিয়ন ইউরো পরিশোধ করবে কাতলান জায়ান্টরা। বাকি ৯ মিলিয়ন ইউরো ট্রান্সফার প্রক্রিয়া সম্পন্ন হওয়ার পর। আর তার জন্য ৪০০ মিলিয়ন ইউরো রিলিজ ক্লজও নির্ধারণ করা হয়েছে।

শুরুতে গ্র্যামিও’র সাথে বার্সার আলোচনা ছিল এমন যে, আর্থারকে কেনার পর আবার সেখানেই ধারে খেলতে পাঠানো হবে, কিন্তু ২০১৮-১০ মৌসুমের জন্য প্রস্তুত করতে তাকে দ্রুতই দলে চান বার্সা কোচ আর্নেস্তো ভালভার্দে।

চুক্তি অনুযায়ী ২০২৪ সাল পর্যন্ত বার্সাতেই থাকবেন আর্থার এবং কাতালান ক্লাবটিতে তিনি তার স্বদেশী ফুটবলার পাওলিনহোর স্থলাভিষিক্ত হবেন। মাত্র এক মৌসুম কাটিয়ে বার্সা থেকে আবার চাইনিজ সুপার লিগের ক্লাব গুয়াংজু এভারগ্রান্দেতে ফিরে গেছেন পাওলিনহো।

বিশ্ব ফুটবলে তেমন আলোচিত নাম না হলেও ব্রাজিলে কিন্তু বেশ জনপ্রিয় ফুটবলার আর্থার। গ্র্যামিওর কোপা দো ব্রাজিল এবং কোপা লিবার্তাদোরেসের শিরোপা জয়ে অগ্রণী ভূমিকা রেখেছেন এই তরুণ ফুটবলার। এখন ইউরোপের ফুটবল মঞ্চে নিজের প্রতিভার বহিঃপ্রকাশ ঘটানোর সুযোগ পাবেন তিনি।

বার্সায় এখন মিডফিল্ডার সঙ্কট চলছে। আন্দ্রেস ইনিয়েস্তা বিদায় নেওয়ায় তার বিকল্প খুঁজতে মরিয়া লা লিগার চ্যাম্পিয়নরা। হয়তো এই কারণেই ২০১৯ সালের মার্চে দলে যোগ দেওয়ার কথা থাকলেও আগেভাগেই আর্থারকে উড়িয়ে আনছে বার্সা।

৫ ফুট ৮ ইঞ্চি উচ্চতার আর্থারকে নিয়ে বার্সা তাদের অফিসিয়াল ওয়েবসাইটে জানিয়েছে, ‘আর্থার দ্রুত টাচে খেলে এবং তার সতীর্থদের ত্রিকোণ পাসে যুক্ত করতে সক্ষম। তার সবচেয়ে বড় বৈশিষ্ট্য সে মাঠে জায়গা তৈরি করতে সক্ষম, যা তাকে প্রতিপক্ষের ডি-বক্সে ডান-পায়ের ভয়ানক বিপদ হিসেবে উপস্থাপন করতে পারে।’

গ্র্যামিওতে ২০১৫ সালে অভিষিক্ত হওয়ার পর ওই বছরই মূল দলে সুযোগ পান তিনি। এই সময়ে ২৭ ম্যাচে মাঠে নেমেছেন তিনি। এই অল্প সময়েই তার পারফরম্যান্স তাকে বিশ্বকাপ বাছাইপর্বের ব্রাজিল সিনিয়র দলে সুযোগ এনে দেয়, যদিও কোনো ম্যাচে মাঠে নামার সুযোগ হয়নি তার। তবে আগামী বিশ্বকাপে ব্রাজিল দলের অন্যতম প্রধান ভরসা হয়ে উঠার সব উপকরণই তার মধ্যে বিদ্যমান।

গ্রীস্মের দলবদলের বাজারে বার্সার কেনা প্রথম খেলোয়াড় আর্থার। মৌসুম শুরুর আগে বার্সা ছেঁড়ে গেছেন ইনিয়েস্তা, জেরার্দ দিউলোফিউ এবং পাওলিনহো।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *