ভারতের কাছে মুকুট হারাল বাংলাদেশের মেয়েরা

গতবারের পুনরাবৃত্তি এবার হলো না। ভারতের কাছে হেরে সাফ অনূর্ধ্ব-১৫ মহিলা ফুটবল চ্যাম্পিয়নশিপের মুকুট হারিয়েছে বাংলাদেশ।

ভুটানের থিম্পুর চাংলিমিথাং স্টেডিয়ামে শনিবার ভারতের কাছে ১-০ গোলে হারে বাংলাদেশ। গতবার প্রথম আসরে একই ব্যবধানে ভারতকে হারিয়ে শিরোপা জিতেছিল গোলাম রব্বানী ছোটনের দল। ওই আসরের প্রাথমিক পর্বে ভারতের বিপক্ষে বাংলাদেশ জিতেছিল ৩-০ গোলে।

ম্যাচের চতুর্থ মিনিটে অভিকা সিংয়ের ফ্রি-কিক ক্রসবার লেগে ফিরলে বেঁচে যায় বাংলাদেশ; ফিরতি বলে সিল্কি দেবীর হেডও ফেরান গোলরক্ষক মাহমুদা আক্তার। সপ্তদশ মিনিটে দারুণ সেভ করে দলের ত্রাতা গোলরক্ষক।

৩১তম মিনিটে মাহমুদা আবারও ত্রাতা। ভারতের এক খেলোয়াড়ের ফ্রি-কিক প্রথম চেষ্টায় গ্লাভসবন্দি করতে পারেননি। তবে সামনে থাকা প্রতিপক্ষের দুই খেলোয়াড় সুযোগ কাজে লাগানোর আগেই বল নিয়ন্ত্রণে নেন এই গোলরক্ষক।

প্রতিপক্ষের গতির সঙ্গে পেরে না ওঠা বাংলাদেশ প্রথমার্ধে সেরা সুযোগটি পায় ৪২তম মিনিটে। ডিফেন্ডার শামসুন্নাহারের বাড়ানো বল প্রতিপক্ষের এক খেলোয়াড়ের পায়ে লেগে চলে যায় ডি বক্সের বাঁ দিকে ফাঁকায় থাকা সাজেদা খাতুনের কাছে। লক্ষ্যভ্রষ্ট শটে দলকে হতাশ করেন এই ফরোয়ার্ড।

৬৬তম মিনিটে পিছিয়ে পড়ে বাংলাদেশ। লিন্ডা কম ছোট করে কর্নার নেন। জানভি শেঠির কাছ থেকে ফিরতি বল পেয়ে লিন্ডার নেওয়া শটেই পা ছুঁইয়ে গোলরক্ষকের মাথার ওপর দিয়ে বল জালে পাঠান সুনিতা মান্ডা। প্রতিপক্ষের জালে ২২ গোল করার পর এই প্রথম গোল হজম করল বাংলাদেশ।

একটু পর ফরোয়ার্ড সাজেদাকে তুলে নিয়ে মিডফিল্ডার শামসুন্নাহারকে নামান কোচ। ৭৬তম মিনিটে মনিকা চাকমার দূরপাল্লার শট ক্রসবারে লাগায় সমতা ফেরেনি। ৮২তম মিনিটে তহুরা খাতুনের শট ডান দিকের পোস্টে লেগে ফিরলে বাংলাদেশের হতাশা আরও বাড়ে।

দ্বিতীয়ার্ধের যোগ করা সময়ে আরেকটি সুযোগ নষ্ট করে বাংলাদেশ। রোজিনা আক্তারের বাড়নো বল গোলমুখ থেকে পা ছোঁয়ানোর কাজটুকু করতে পারেননি তহুরা। শেষ পর্যন্ত তাই হারের হতাশা নিয়ে মাঠ ছাড়তে হয় দলকে।

ভুটানের প্রতিযোগিতায় ফাইনালে এসে প্রথম হারল বাংলাদেশ। পাকিস্তানকে ১৪-০ গোলে ও নেপালকে ৩-০ গোলে হারিয়ে গ্রুপ পর্ব পেরুনো দল সেমি-ফাইনালে স্বাগতিক ভুটানকে হারায় ৫-০ ব্যবধানে।

Leave a Reply