ভারতে বসছে না আগামী আইপিএল!

বিশ্বের অন্যতম জমজমাট টি-টোয়েন্টির আসর ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগ (আইপিএল)। কয়েকদিনের মধ্যে শুরু হবে মিলিয়ন ডলারের একাদশ আয়োজনের নিলাম। আর এপ্রিল থেকে শুরু হবে আয়োজনের মূল পর্ব।

২০০৯ সালে দক্ষিণ আফ্রিকায় আসর বসেছিল ঠিক সেরকমই নাকি হতে চলেছে। তবে এ বছর নয়। আগামী আসর অর্থাৎ ২০১৯ সালেও দক্ষিণ আফ্রিকায় আয়োজিত হবে।

গেলো দশ মৌসুমে জমজমাট আইপিএল ক্রিকেট ও বিনোদনের মিশেলে দর্শকরা দারুণ উপভোগ করছে। সেই ২০০৯ সালের ইতিহাস ফিরে দেখতে চলেছে দক্ষিণ আফ্রিকা। আনুষ্ঠানিকভাবে কোনো ঘোষণা না দেয়া হলেও প্রস্তুতি শুরু হয়ে গেছে।

ভারতীয় ক্রিকেট নিয়ন্ত্রণ বোর্ড (বিসিসিআই) এরই মধ্যে নিজেদের কোটি ডলারের প্রজেক্ট নিয়ে বিভিন্ন প্ল্যানিং শুরু করে দিয়েছে যাতে কোনো প্রয়োজন হলেই দক্ষিণ আফ্রিকা পাড়ি দিতে পারে।

২০১৯ সালে ভারতে লোকসভা নির্বাচন ফলে সেসময় নিরাপত্তা সংক্রান্ত প্রশ্নে আইপিএল ম্যাচগুলোকে ছাড় নাও দেওয়া হতে পারে। তাই এই ঝামেলায় পড়ার আগেই নিজেদের প্রস্তুতি সেরে রাখতে চাইছে বিসিসিআই।

সম্ভাব্য এপ্রিল- মে মাসে নির্বাচন হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। এই অবস্থায় কোনো ঝুঁকি নিতে চাইছে না।

বিসিসিআইয়ের কাছে এই মুহূর্তে দুটি রাস্তা খোলা আছে। একটি উপায় পুরো দেশের বাইরে টুর্নামেন্টটা নিয়ে যাওয়া, আর নইলে টুর্নামেন্ট খানিকটা বাইরে নিয়ে যাওয়া। সেক্ষেত্র সংযুক্ত আরব আমিরাতে (ইউএই) খেলা সরিয়ে নিয়ে যাওয়া হতে পারে।

তবে ভারতের গণমাধ্যমগুলো খবর, যদি কোনোভাবে নির্বাচন আগে এগিয়ে আসে তাহলে আর হয়তো দেশের বাইরে যাবে না আইপিএল। যেহেতু তার সম্ভাবনা বেশ কম তাই দক্ষিণ আফ্রিকা ক্রিকেট বোর্ডের সঙ্গে এই বিষয়ে কথাও শুরু করে দিয়েছে বিসিসিআই।

ক্রিকেট সাউথ আফ্রিকা (সিএসএ) এরইমধ্যে এই প্রজেক্ট নিজের দেশে আয়োজন হবে বলে উৎসাহী হয় পড়েছে। তবে লজিস্টিক্যালি এই টুর্নামেন্টকে সরিয়ে নিয়ে যাওয়া বিসিসিআইয়ের পক্ষে দুঃস্বপ্ন।

আইসিসি বিশ্বকাপ ২০১৯ সালেই রয়েছে, সেটা শুরু হবে মের ৩০ তারিখ।

আর প্রস্তাব অনুযায়ী আইপিএলকে বিশ্বকাপের ১৫ দিন আগে শেষ করতে হবে। এছাড়াও আইসিসির নিজস্ব নিয়ম থাকবে দুটি টুর্নামেন্টের মধ্যে সময়ের পার্থক্য নির্ধারণ করার জন্য। সেটা অনুযায়ীও প্রতিটা দলকে ১৫ দিন আগে থেকে অন্তত প্রস্তুতি শুরু করতে হবে বিশ্বকাপের ভেন্যুতে।

বিসিসিআই চাইছে বিশ্বকাপের ১৫-২০ দিন আগে টুর্নামেন্ট শেষ করতে। ফলে ২০১৯ আইপিএল মার্চের ১৫ থেকে ২০ তারিখ শুরু হয়ে যেতে পারে। এরই জন্যে আইপিএলের কিছুটা অংশ বাইরে আয়োজন করার সম্ভাবনাটাও উড়িয়ে দিচ্ছে না ভারতীয় বোর্ড।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *