মাইক্রোওয়েভ ওভেনের নানাবিধ ব্যবহার,জানুন!

সহজে বানিয়ে নিন জুস

যেকোনো ফল না কেটে আস্ত অবস্থায় ওভেনে ১০ সেকেন্ডের জন্য গরম করে নিন। এতে করে ফলে থাকা ফাইবারের শক্ত ভাবটা চলে গিয়ে নরম হয়ে যায় এবং সহজেই ফলের পুরো রসটাই বেরিয়ে আসে। রান্নার সময় অনেক ক্ষেত্রে লেবুর রস ব্যবহার হয়। তখনও এই পদ্ধতিতে বেশি পরিমাণে লেবুর পুরো রস পেতে পারেন।

আস্ত ফল ওভেনে গরম দিলে জুসের জন্য রস বেশি পাওয়া যাবে;
বাদাম ভাজার দ্রুত ও সহজ উপায়

ওভেন প্রুফ একটি বাটিতে এক মুঠো বাদাম নিন। এতে সামান্য পরিমাণ তেল দিয়ে টস করে ৫ মিনিটের জন্য মাইক্রোওয়েভ ওভেনে গরম করে নিন। প্রতি ৬০ সেকেন্ড অন্তর অন্তর বের করে একবার করে নেড়ে নিন। বিভিন্ন রকমের বাদামের ক্ষেত্রে সময়ের পরিমাণ ভিন্ন হতে পারে। কিন্তু সব ধরনের বাদামের জন্যই সময় ৫ মিনিটের বেশি প্রয়োজন হয় না।

যেকোনো বাদাম ভাজুন ওভেনে;
জমে যাওয়া মধু ফিরিয়ে আনুন স্বাভাবিক অবস্থায়

শীতকালে মধু জমে যাওয়ার সমস্যা বেশি হয়। মধু জমে বোতলের তলায় লেগে গেলে মাইক্রোওয়েভ ওভেন ব্যবহার করে সহজেই গলিয়ে নিতে পারেন। প্রথমে মধুর বোতলের ঢাকনা খুলে নিন। এরপর ৩০-৪০ সেকেন্ডের জন্য গরম করে নিলেই মধু আবার স্বাভাবিক অবস্থায় ফিরে আসবে। তবে খেয়াল রাখবেন, মধুর বোতল যেন প্লাস্টিকের না হয়। তাহলে ওভেনের তাপে বোতল গলে যাবে।

জমে যাওয়া মধু গলবে সহজে,
জমে যাওয়া মধু ফিরিয়ে আনুন স্বাভাবিক অবস্থায়

ধুন্দল বা মূলা জাতীয় সবজি ছিলতে বেশ কষ্টই পোহাতে হয়। সেক্ষেত্রে এসব সবজি ছিলার আগে ওভেনে লো পাওয়ারে ২-৩ মিনিট গরম করে নিলে ছোলা নরম হয়ে যায়। তখন ছোলা ছিলতে ও কাটতে সহজ হয়।
পেঁয়াজ কাটা হবে অনেক সহজ

পেঁয়াজ কাটতে গিয়ে কেঁদেকেটে একাকার অবস্থা? এই টিপস্‌ অনুযায়ী কাটলে সমস্যাটি এড়ানো সম্ভব। প্রথমে পেঁয়াজ ধুয়ে নিন। এরপর এর শেষের অংশটুকু কেটে ৩০ সেকেন্ড গরম করে নিন। এরপর পেঁয়াজ কাটলে আর আপনার চোখ থেকে পানি পড়বে না।

পেঁয়াজ কাটলেও চোখে পানি আসবে না,
ফিরে আসবে মসলার লোভনীয় সুগন্ধ

মসলা, বাদাম ও বিভিন্ন ধরনের বাদামের সুগন্ধ ফিরে পেতে মাইক্রোওয়েভ ওভেন বেশ ভালো কাজে দেয়! ওভেন প্রুফ বাটিতে করে ফুল পাওয়ারে ১৫ সেকেন্ডের জন্য গরম দিলেই তফাতটা দেখতে পাবেন।
বিস্কুট হবে কুড়মুড়ে

এয়ারটাইট কন্টেইনারে প্রিয় বিস্কুট রাখায় কুড়মুড়ে ভাবটা চলে গিয়েছে? চিন্তার কিছু নেই, মাইক্রোওয়েভ ওভেন আছে না! ৩০ সেকেন্ড গরম দিয়েই দেখুন না কেমন ফ্রেশ আর কুড়মুড়ে হয়ে যায় আপনার প্রিয় বিস্কুট।
রসুনের ছোলা ছিলুন আরো সহজ

রসুনের কোয়াগুলো আলাদা করুন। এরপর একটি ওভেন প্রুফ বাটিতে ১৫ সেকেন্ডের জন্য গরম করে নিন। এতে করে রসুনের ছোলাতে আর্দ্রভাব আসবে এবং ছোলা নরম হয়ে যাবে। তাই খুব সহজেই আপনি তখন ছোলা ছিলে নিতে পারবেন।
ডিম পোচ করুন ওভেনে

একটি ওভেন প্রুফ বাটি অর্ধেকটুকু পানি দিয়ে ভরে নিন। এরপর পানিতে ডিম ভেঙে দিন। এরপর বাটিটি একটি প্লেট দিয়ে ঢেকে দিন। ৬০ সেকেন্ড গরম করেই পেয়ে যাবেন ডিম পোচ।

মাইক্রোওয়েভ ওভেনে হবে ডিম পোচ,
মসুর ডাল ভিজবে জলদি ও সহজে

ওভেন প্রুফ বাটিতে মসুর ডাল নিয়ে তাতে পানি দিয়ে ভিজিয়ে নিন। এবার এই বাটি মাইক্রোওয়েভ ওভেনে ১০ মিনিটের জন্য গরম করে নিন। এরপর বের করে ৩০-৪০ মিনিট ধরে ঠাণ্ডা হতে দিন। ব্যস, সহজেই মসুর ডাল ভিজে গেলো।
চকলেট গলান সহজে

চকলেট ছোট ছোট করে কেটে একটি ওভেন প্রুফ বাটিতে নিয়ে ১৫ সেকেন্ড অন্তর অন্তর দু’বার করে মোট ৩০ সেকেন্ড গরম করে নিন। প্রতিবার গরম দেয়ার পর একটু নেড়ে নিলে চাকা বা দলা ভাবটা চলে যাবে।

চকলেট গলানো এবার বেশ সহজ!,
পালং শাক রান্নার বিকল্প

পালং শাকে প্রচুর পরিমাণে ফোলেট থাকে। চুলায় রান্না করার চাইতে মাইক্রোওয়েভ ওভেনে রান্না করলে পালং শাকে ফোলেটের গুণাগুণ বজায় থাকে। চুলায় রান্না করলে ৭৭ শতাংশ পর্যন্ত পালং শাকে থাকা ফোলেটের গুণাগুণ কম পাওয়া যায়।
ব্রাউনি বানানোর সহজ উপায়

মগে করে মাইক্রোওয়েভ ওভেনে সহজেই ব্রাউনি বানানো সম্ভব। শুকনা সব উপকরণ, যেমন- ময়দা, চিনি, কোকোয়া পাউডার, লবণ ও দারুচিনি গুঁড়ো সব একসাথে একটি মগে নিন। এরপর এর সাথে সব পানীয় উপকরণ,যেমন- তেল, পানি ও ভ্যানিলা এসেন্স মেশান, যতক্ষণ না পর্যন্ত মিশ্রণটির চাকা বা দলা ভাবটা না চলে যায়। এরপর মাইক্রোওয়েভ ওভেনে হাই-পাওয়ার দিয়ে ১ মিনিট ৪০ সেকেন্ডের মতো থাকতে দিন (যদিও এই পরিমাণ সময়টা আপনার মাইক্রোওয়েভ ওভেনের ধরন অনুযায়ী ভিন্ন হতে পারে)। এরপর বের করে উপভোগ করুন মজাদার ব্রাউনি।
বানিয়ে ফেলুন তেল ছাড়া আলুর চিপস

ব্যাপারটা খুব অসম্ভব মনে হচ্ছে, তাই না? কিন্তু মাইক্রোওয়েভ ওভেনে এটাও সম্ভব। আলুগুলোকে প্রথমে পাতলা পিস করে কাটুন। এরপর ওভেন প্রুফ বাটিতে একটি একটি পিস করে বসান। প্রথমে ৩ মিনিট গরম দিন। তারপর বের করে আলুর পিসগুলোকে উল্টো করে দিয়ে আবার ৩ মিনিট গরম হতে দিন। তেল ছাড়া মচমচে আলুর চিপস খাওয়ার জন্য একদম রেডি!

তেল ছাড়া আলুর চিপস্‌,
বানিয়ে নিন ক্যারামেল সস

চুলায় যে আপনি ক্যারামেল সিরাপ বানাতে পারবেন না, তা কিন্তু নয়। তবে তাতে খুব সাবধানতা অবলম্বন না করলে ক্যারামেল জ্বলে পুড়ে যাওয়ার সম্ভাবনাই বেশি। একটি ওভেন প্রুফ মেজারমেন্ট কাপে চিনি, কর্ণ সিরাপ, পানি ও লেবুর রস নিয়ে ভালোভাবে ঝাঁকিয়ে নিন। হাই-পাওয়ারে ৫-৮ মিনিটের মতো রেখে দিন। তবে একটু পর পর লক্ষ্য রাখুন, ক্যারামেল হালকা সোনালি রঙ ধারণ করেছে কিনা। এরপর হয়ে গেলে বের করে কিছুক্ষণের জন্য ঠাণ্ডা হতে দিন। তারপর এতে ক্রিম, ভ্যানিলা ও মাখন দিয়ে ঝাঁকিয়ে নিন। ব্যস, তৈরি হয়ে গেলো আপনার ক্যারামেল সস।
সবজি স্টিম করুন স্টিমার ছাড়াই

এই কাজটি করা কিন্তু আসলেই সম্ভব! ব্রকলি, গাজর, বরবটি বা যেকোনো ধরনের শক্ত সবজি মাইক্রোঅয়েভ ওভেনে স্টিম করতে পারবেন সহজেই। আর তা-ও মাত্রই ৫-১০ মিনিটের মধ্যেই! একটি ওভেন প্রুফ বা পাইরেক্সের বাটিতে কেটে রাখা ব্রকলি, গাজর বা অন্য কোনো সবজি নিয়ে তাতে সামান্য পরিমাণ পানি ও পরিমাণ মতো লবণ দিন। এরপর একটি ভেজা পেপার বা কাগজ দিয়ে ঢেকে ২-৩ মিনিট বা বড়জোড় ৫-১০ মিনিট রেখে দিন। এরপর কাগজটি বাটি থেকে খুললেই পেয়ে যাবেন মজাদার ও স্বাস্থ্যসম্মত সবজি।

সবজির ক্রাঞ্চি ভাবটাও যেমন থাকে, তেমনি পুষ্টিগুণ বজায় থাকে,
ফ্রিজের খাবার স্বাভাবিক অবস্থায় ফিরিয়ে আনুন সহজে

ফ্রিজ থেকে জমাট বাঁধা মাংস বা যেকোনো প্যাকেটজাত খাবার বের করে স্বাভাবিক অবস্থায় ফিরিয়ে আনতে পারবেন খুব সহজেই। প্যাকেট থেকে জমাট বাঁধা খাবার বের করে কয়েক সেকেন্ডের জন্য গরম করে নিলেই হবে। তবে ফোমের ট্রে জাতীয় কোনো প্যাকেট বা প্লাস্টিকের কাগজ খুলে নিতে অবশ্যই ভুলবেন না। কারণ মাইক্রোওয়েভ ওভেনের তাপে এসব গলে যাওয়ার সম্ভাবনা থাকে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Shares