মায়ের জন্য ওয়াশরুমেই বিয়ে

হাত-মুখ ধোয়ার ঘরটা যতই ফিটফাট হোক না কেন, বিয়ের মতো জাঁকালো অনুষ্ঠান সেখানে সারতে কে চায়? ব্রায়ান আর মারিয়া জুটিও অন্তত তা চাননি। কিন্তু সেই ওয়াশরুমেই বিয়ের পর্ব সারতে হলো তাদের। বর ব্রায়ান শুলজের মায়ের জন্য তাদের এই রকম জায়গায় বিয়েতে বসতে হলো।

এমনভাবে বিয়ে হবে— কল্পনাও করেননি তারা। হঠাৎ অসুস্থ হয়ে পড়লেন বরের মা। গত ২ জানুয়ারি যুক্তরাষ্ট্রের মনমাউথ কাউন্টি কোর্ট হাউসের ওয়াশরুমে এই বিয়ে হয়।

স্থানীয় সময় গত বৃহস্পতিবার ব্রায়ান দ্য নিউইয়র্ক পোস্টকে বলেন, ‘আমরা বিয়ের জন্য আদালত কক্ষের বাইরে বসেছিলাম। হঠাৎ আমার মা ফোনে জানালেন, তার শ্বাসকষ্ট হচ্ছে।
খুঁজে খুঁজে মাকে ওয়াশরুমে পাই। সে অবস্থায় মা ছিলেন খুবই দুর্বল এবং ঘামে ভেজা। কথাও বলতে পারছিলেন না। মনমাউথ কাউন্ট শেরিফ কার্যালয়ের কর্মকর্তারা ব্রায়ানের মায়ের শুশ্রূষা করেন। তারা তার জন্য অক্সিজেনের ব্যবস্থা করেন।

ফেসবুকে মনমাউথ কাউন্টি শেরিফের কার্যালয় জানায়, মায়ের এই অসুস্থতায় ব্রায়ান ও মারিয়া মানসিকভাবে খুবই বিপর্যস্ত হয়ে পড়েছিলেন। তারা বিয়ে পিছিয়ে দিতে চাইছিলেন। কিন্তু বিয়ের নতুন লাইসেন্স করতে তাদের আরও ৪৫ দিন অপেক্ষা করতে হতো।

এদিকে ব্রায়ানের মাকে ওয়াশরুম থেকে সরানোও সম্ভব হচ্ছিল না। কারণ, সেখানেই তাঁর জন্য অক্সিজেনের বন্দোবস্ত করা হয়েছিল। এ কারণে কর্মকর্তারা তার সামনেই বিয়ের আয়োজনের সিদ্ধান্ত নেন।

ওয়াশরুমে গিয়ে বিয়ে পরিচালনা করতে রাজি হন বিচারক কে গামার।

এই ব্যতিক্রমী বিয়ের ভিডিও পোস্ট করা হয়েছে ফেসবুকে। ১০ হাজারেরও বেশিবার এটি দেখা হয়েছে। গত ২৫ জানুয়ারি এই ভিডিও প্রথমবার শেয়ার করা হয়।

ভালো খবর হলো, যার কারণে এমন বিয়ের আয়োজন, সেই মা এখন পুরোপুরি সুস্থ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *