মুসলিমবিদ্বেষী টুইট করে বেকায়দায় এমপি

টুইটারে মুসলিমবিদ্বেষী বার্তা লেখার কারণে পুলিশি তদন্তের মুখে পড়েছেন এক জার্মান রাজনীতিক। তাঁর ট্ইুটার অ্যাকাউন্টটিও স্থগিত করা হয়েছে। জার্মানির ডানপন্থী দল অলটারনেটিভ ফর জার্মানির (এএফডি) ডেপুটি লিডার বিট্রিক্স ভন স্টর্চের বিরুদ্ধে গতকাল সোমবার মুসলিমবিদ্বেষী এই টুইটের অভিযোগ উঠেছে। আজ বিবিসি অনলাইনে এ খবর প্রচার করা হয়েছে।

আরবিতে নতুন বছরের শুভেচ্ছা জানানো জার্মানির কোলন শহরের পুলিশের উদ্দেশে তিনি টুইটারে ‘বর্বর, গণধর্ষক মুসলিম পুরুষের দল’ লিখেছেন। ঘৃণা ছড়ানোর জন্য উসকানিমূলক বক্তব্য দেওয়ার অভিযোগ আনার সিদ্ধান্ত নিয়েছে পুলিশ।

পুলিশ বাহিনী আরবি ও জার্মান ভাষার পাশাপাশি ইংরেজি ও ফরাসি ভাষাতেও নববর্ষের শুভেচ্ছা জানিয়ে টুইট করেছিল।

বিট্রিক্সের এই টুইটের পর টুইটার কর্তৃপক্ষ এটিকে সাইটের নিয়মবহির্ভূত উল্লেখ করে ১২ ঘণ্টার জন্য তাঁর অ্যাকাউন্ট স্থগিত করে। এরপর একই বার্তা তিনি ফেসবুকে পোস্ট করেন। সেখানেও উত্তেজনা ছড়ানোর কারণ দেখিয়ে তা ব্লক করা হয়।

 

কোলন পুলিশ জার্মান সাময়িকী ডের স্পিগেলকে জানিয়েছে, পার্লামেন্টের এই সদস্য অপরাধমূলক কর্মকাণ্ড করেছেন কি না, তা যাচাই করা হচ্ছে এবং তা স্বাভাবিক প্রক্রিয়ায় চলছে।

জার্মানিতে বিদ্বেষমূলক বক্তব্য দেওয়ার বিরুদ্ধে নতুন আইন কার্যকরের কয়েক মাসের মধ্যে এই বিতর্ক শুরু হলো।

দেশটি এখন থেকে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমের সাইটগুলোকে এ ধরনের ‘স্পষ্টত বে আইনি’ পোস্ট সরিয়ে না নিলে জরিমানা করবে।

Leave a Reply