যাত্রীর নিরাপত্তায় উবার অ্যাপে যুক্ত হলো ন্যাশনাল হেল্প লাইন

অন-ডিমান্ড রাইড শেয়ারিং কোম্পানি উবার মঙ্গলবার ন্যাশনাল ইমারজেন্সি নম্বর ৯৯৯ তাদের রাইডার অ্যাপে সংযুক্ত করার ঘোষণা দিয়েছে। এতে যাত্রীদের নিরাপত্তা আরও বাড়বে। যাত্রীদের নিরাপত্তা আরও বাড়াতে উবারের ধারাবাহিক প্রতিশ্রুতি ও প্রতিজ্ঞার অংশ হিসেবে রাইডার অ্যাপে এই হেল্পলাইন নম্বর সংযুক্ত করা হয়েছে বলে উল্লেখ করা প্রতিষ্ঠানটির পক্ষ থেকে।

এটি কিভাবে কাজ করবে? উবারের গাড়িতে ভ্রমণ করার সময় কোনো জরুরি অবস্থার সৃষ্টি হলে যাত্রীরা অ্যাপের ভেতর ‘কল নাউ’ প্রেস করে বিনামূল্যে বাংলাদেশের আইসিটি বিভাগ পরিচালিত জাতীয় হেল্প ডেস্কের সাথে যোগাযোগ করতে পারবে। বাটনটি একবার প্রেস করার সাথে সাথে যাত্রীদের ফোনের ডায়ালে ৯৯৯ নম্বরটি চলে আসবে।
৯৯৯ নম্বরে কল করলে যাত্রীরা সরকারী কনট্রোল রুমের সাথে যোগাযোগ করতে পারবেন। এরপর জরুরী অবস্থার প্রকৃতি বুঝে যাত্রীরা ১ প্রেস করে অ্যাম্বুুলেন্স, ২ প্রেস করে ফায়ার সার্ভিস, ৩ প্রেস করে পুলিশের সহযোগিতা পাওয়া যাবে। এবং ‘০’ প্রেস করে সরাসরি সরকারী প্রতিনিধির সাথে কথা বলতে পারেন।

এ ব্যাপারে উবার ঢাকার জিএম অর্পিত মুন্ড্রা বলেন, যাত্রীদের নিরাপত্তাকে আমরা অগ্রাধিকার দিয়ে থাকি। প্রযুক্তি ব্যবহারের মাধ্যমে যাত্রীদের যতোটা সম্ভব নিরাপদ রাখতে আমরা বদ্ধপরিকর। উবারের সাথে ইমার্জেন্সি নম্বর ৯৯৯ সংযুক্ত করার পদক্ষেপটি যাত্রার পূর্বে, যাত্রার সময় ও যাত্রার পরে অর্থাৎ প্রত্যেকটি ক্ষেত্রে নিরাপত্তার ব্যাপারে আমাদের প্রতিজ্ঞাকে প্রতিফলিত করে।

উবার অ্যাপে থাকা ইন-বিল্ট সেফটি ফিচারগুলির সাথে উক্ত ফিচারটি যুক্ত হয়ে একটি নতুন মাত্রা প্রদান করেছে। যাত্রার পূর্বে, যাত্রার সময় এবং যাত্রার পরে যাত্রী ও চালকের নিরাপত্তা রক্ষার ক্ষেত্রে উবারের মতো প্রযুক্তি নতুন ও উদ্ভাবনী এক পন্থা প্রদান করেছে। যাত্রার পূর্বে: ‘এ’ থেকে ‘বি’ স্থানে নিরাপদ, নির্ভরযোগ্য ও সুবিধাজনকভাবে যাত্রা নিশ্চিত করার জন্য উবার অ্যাপ যাত্রীদের আগে থেকেই চালকের নাম, ছবি, গাড়ির ধরন এবং রেজিস্ট্রেশন নম্বরে দেখার সুযোগ দিচ্ছে।

যাত্রার সময়: উবারে যাত্রার সময় যাত্রীরা জিপিএস ট্র্যাকিং চালু করতে পারেন, এবং ‘শেয়ার মাই স্ট্যাটাস’ অপশন ব্যবহারের মাধ্যমে যাত্রার যাবতীয় তথ্য ইচ্ছা অনুযায়ী তাদের ফোনবুকে থাকা ব্যক্তিদের সাথে শেয়ার করতে পারেন। এর ফলে যারা অ্যাপের মাধ্যমে বার্তা পাবে তারা যাত্রা চলাকালে যে কোনো সময়ে গাড়ি কোন রাস্তা ও স্থানে আছে তা দ্রুত নির্ণয় করতে পারবেন। যে কোনো জরুরী অবস্থায় এখন অ্যাপের মাধ্যমে যাত্রীরা ৯৯৯ হেল্পলাইনে সরকারী প্রতিনিধির সাথে যোগাযোগ করতে পারবেন।

যাত্রার পরে: একটি ট্রিপ শেষ হওয়ার পর সেটিতে রেটিং দেওয়ার পাশাপাশি যাত্রীরা অ্যাপের ‘পাস্ট ট্রিপ’ অংশে গিয়ে যাত্রার ব্যাপারে তাদের ফিডব্যাক প্রদান করতে পারবেন। ২৪ ঘন্টা চালু থাকা ‘কাস্টমার সাপোর্ট’ অ্যাপে সংযুক্ত করা হয়েছে যাত্রীদের সেবা ও কার্যক্রম উন্নততর করার জন্য। জরুরী যেসব অবস্থায় দ্রুত পদক্ষেপ নেওয়া প্রয়োজন সেসব ক্ষেত্রে এখন আমরা আরও সক্ষম।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Shares