রান্না ছাড়াও আলুর অসাধারণ সব ব্যবহার

সারা বিশ্বে সবচেয়ে জনপ্রিয় সবজি বলতে আলু একনামে পরিচিত। কারণ পুরো পৃথিবীতে যে সবজিটি বেশি খাওয়া হয় তা হলো আলু। এ তো গেল শুধু খাবারের কথা। আরো বিভিন্ন কাজে আলুর রয়েছে ব্যাপক ব্যবহার। হতে পারে রূপচর্চা বা চিকিত্‍সায়, তেমনি হতে পারে ঘরদোর বা রান্নার কাজেও। জেনে নিন আলুর এমনই চমকপ্রদ কিছু ব্যবহার।

দাগ তুলতে সহায়ক:
দীর্ঘদিন ব্যবহারের ফলে স্টিলের জিনিসপত্রে দাগ পড়ে যায়, উজ্জ্বলতা নষ্ট হয়ে যায়। কাঁচা আলু থেঁতো করে নিন। এবার এই আলু দিয়ে স্টিলের জিনিসপত্র ঘষে ১০ মিনিট পর সাবান-পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। স্টিলের চমক দেখে চমকে যাবেন আপনি নিজেই!

আগুনে আঁচ লাগলে :
আগুনের আঁচ বা গরম পানির ভাঁপ লাগলে চামড়া পোড়ে না ঠিকই তবে খুব জ্বলুনি হয়। কাঁচা আলু থেঁতো করে আক্রান্ত জায়গায় লাগান। জ্বালা-পোড়া কমে যাবে।

মেছতার চিকিত্‍সায় :
মেছতা হলো ত্বকের এমন একটি রোগ, যা একবার হলে দিন দিন বেড়েই চলে। কাঁচা আলু মিহি করে বেটে নিন। এর সাথে যোগ করুন অ্যালোভেরার রস। মেছতায় আক্রান্ত অংশে পুরু করে প্রলেপ দিন। আধা ঘণ্টা পর ধুয়ে ফেলুন। নিয়মিত ব্যবহারে মেছতার দাগ হালকা হতে শুরু করবে।

চুল পড়া কমাতে :
কাঁচা আলুর রস চুল পড়া কমাতে ও নতুন চুল গজাতেও সাহায্য করে! আলু থেঁতো করে রস ছেঁকে নিন। এই রস তুলা দিয়ে চুলের গোড়ায় ও মাথার ত্বকে ভালো করে লাগান। ১ ঘণ্টা পর চুল ধুয়ে ফেলুন। নিয়মিত ব্যবহারে চুল পড়া রোধ হবে এবং নতুন চুল গজাবে।

বলিরেখা দূর করতে :
চোখের নিচে ডার্ক সার্কেল দূর করতে কাঁচা আলু ব্যবহার করে বেশ উপকার পাওয়া যায়। কিন্তু জানেন কি, কাঁচা আলু বলিরেখা দূর করতেও সাহায্য করে? আলু থেঁতো করে রস ছেঁকে নিন। তুলা দিয়ে এই রস ত্বকে লাগান। রস শুকিয়ে গেলে মুখে ঠান্ডা পানি দিয়ে পরিষ্কার করে ধুয়ে ফেলুন। তবে আলুর রস লাগানো অবস্থায় ভুলেও কথা বলবেন না বা হাসবেন না। এতে হিতে বিপরীত হতে পারে।

হজম ক্ষমতা ও রক্ত চলাচল বাড়ায় :
আমাদের শরীরে যত রকম সমস্যা হয়, তার অন্যতম কারণ রক্ত চলাচলের অভাব। পর্যাপ্ত রক্ত চলাচলের অভাবে কোষে অক্সিজেন সাপ্লাই কমে যায় ফলে এনার্জিও কমতে থাকে। সঙ্গে কমে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা। হজম ক্ষমতাও কমে যায়। আলুর জ্যুস এই সমস্যা দূর করে। আলুর জ্যস যেমন হজম ক্ষমতা বাড়ায়, তেমনই রক্ত চলাচলও বাড়ায়। ফলে শরীর থাকে চনমনে ও সতেজ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *