রিয়ালে রোনালদো অধ্যায়ের সমাপ্তি

রিয়াল মাদ্রিদ ছেড়ে সত্যিই ইতালিয়ান ক্লাব জুভেন্টাসে যোগ দিচ্ছেন ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো। আজ মঙ্গলবার বিবৃতিতে বিষয়টি নিশ্চিত করেছে স্পেনের ঐতিহ্যবাহী ক্লাবটি। ৩৩ বছর বয়সী তারকার সঙ্গে আজ জুভেন্টাস প্রেসিডেন্ট আন্দ্রে আগনেলি সাক্ষাৎ করেন। প্রায় দুই ঘণ্টার বৈঠকের পর রিয়াল ছাড়ার আনুষ্ঠানিক ঘোষণা আসে।

বার্তা সংস্থা বিবিসি জানিয়েছে, পাঁচবারের ব্যালন ডি’ অর জয়ীর জন্য ১০৫ মিলিয়ন ইউরোর বিনিময়ে এ ট্রান্সফারের চুক্তি সই করতে চলছে রিয়াল ‍ও জুভেন্টাস। ২০১৭/১৮ মৌসুমে ৭৫.৩ মিলিয়ন ইউরোতে গঞ্জালো হিগুয়েইনকে কিনেছিল তুরিনের দলটি। আর্জেন্টাইন স্ট্রাইকারকে সই করানোই ছিল সর্বোচ্চ ট্রান্সফার ফি। সে হিসেবে রোনালদোই জুভিদের ইতিহাসের সবচেয়ে দামী খেলোয়াড়।  ২০০৯ সালে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড থেকে ৮০ মিলিয়ন ইউরোর বিনিময়ে বার্নাব্যু শিবিরে যোগ দিয়েছিলেন পর্তুগিজ মহারাজ। এদিন আনুষ্ঠানিক বিবৃতিতে স্প্যানিশ জায়ান্ট কর্তৃপক্ষ জানায়, ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো সবসময় রিয়াল মাদ্রিদের জন্য প্রতীক হয়ে থাকবেন। লস ব্লাঙ্কোসদের পক্ষ থেকে বলা হয়, রিয়াল মাদ্রিদ ধন্যবাদ জানাতে চায় এমন একজন ফুটবলারকে যিনি নিজেকে বিশ্বের সেরা হিসেবে প্রমাণ করতে সক্ষম হয়েছেন। তিনি আমাদের দলের এবং বিশ্ব ফুটবলের ইতিহাসের উজ্জ্বল সময়ের চিহ্ন এঁকেছেন। রিয়াল মাদ্রিদ সব সময়েই তোমার ঘর।

গেলো নয় বছরে রিয়ালের জার্সিতে ৪৩৮ ম্যাচে করেছেন ৪৫০ গোল। একে একে ভেঙেছেন সব কিংবদন্তিদের রেকর্ড। স্প্যানিশ ক্লাবটির হয়েই চারটি ব্যালন ডি’অরও জয় করেন পর্তুগালের অধিনায়ক।  মাদ্রিদের দলটির হয়ে মোট ১৬টি ট্রফি জিতে নেন। এর মধ্যে চারটি চ্যাম্পিয়ন লিগ, দুটি করে লা লিগা, কোপা দেল রে এবং স্প্যানিশ সুপার কাপ জিতেছেন সময়ের সেরা এই তারকা। ইতিহাসের অন্যতম সেরা ক্লাবটিতে যোগ দেয়ার পর তিনটি ইউরোপিয়ান সুপার কাপ ও তিনটি ক্লাব বিশ্বকাপ শিরোপাও জিতে নেন সিআর সেভেন।

Leave a Reply