রোহিঙ্গাদের পাশাপাশি স্থানীয়দের সহায়তা অব্যাহত রাখবে যুক্তরাষ্ট্র

শুধু রোহিঙ্গাদের জন্য নয়, কক্সবাজারের জনগণের জন্যও যুক্তরাষ্ট্র সরকার সহায়তা অব্যাহত রাখবে।

মঙ্গলবার কক্সবাজারের উখিয়ার বালুখালীতে স্থাপিত নতুন রোহিঙ্গা ক্যাম্প পরিদর্শন শেষে এসব কথা বলেন বাংলাদেশে নব নিযুক্ত মার্কিন রাষ্ট্রদূত আর্ল রবার্ট মিলার।

রবার্ট মিলার জানান, রোহিঙ্গাদের মিয়ানমারে তাদের বসত ভিটায় ফিরে যাওয়ার জন্য নিরাপদ পরিবেশ সৃষ্টি করতে হবে। তাদের অধিকার ফিরিয়ে দিতে হবে। প্রত্যাবাসন হতে হবে স্বেচ্ছামূলক। নিরাপদ এবং স্বেচ্ছায় প্রত্যাবাসনের পরিবেশ সৃষ্টির জন্য যুক্তরাষ্ট্র সরকার আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়কে নিয়ে কাজ করছে।

তিনি বলেন, বিপুল পরিমাণ রোহিঙ্গাদের আশ্রয় দিতে গিয়ে কক্সবাজারের পরিবেশের যে ক্ষতি হয়েছে তা অপূরণীয়। কিভাবে এ ক্ষতি পুষিয়ে নেয়া যায় এবং পরিবেশ ফিরিয়ে আনা যায় এ ব্যাপারে যুক্তরাষ্ট্র সরকার সহায়তা করবে।

এর আগে আজ মঙ্গলবার সকাল সাড়ে ৯টার দিকে বিমানযোগে তিনদিনের সফরে তিনি কক্সবাজার পৌঁছান। পরে মার্কিন রাষ্ট্রদূত দুপুর ১২টার দিকে বান্দরবনের নাইক্ষ্যংছড়ির ঘুনধুম তুমব্রু সীমান্তের কোনার পাড়ার শূন্য রেখায় অবস্থানরত রোহিঙ্গা ক্যাম্প পরিদর্শন করেন এবং সেখানে রোহিঙ্গা নেতাদের সঙ্গে কথা বলেন।

দুপুর দেড়টার দিকে বালুখালী ট্রানজিট ক্যাম্প, আড়াইটায় কুতুপালং ও বালুখালী রোহিঙ্গা ক্যাম্পে পরিচালিত যুক্তরাষ্ট্র ভিত্তিক বিভিন্ন দাতা সংস্থার কর্মকাণ্ড পরিদর্শন করেন। এসময় তিনি নির্যাতিত রোহিঙ্গা, ক্যাম্পে দ্বায়িত্বরত সরকারি ও আন্তর্জাতিক সংস্থার কর্মকর্তাদের সঙ্গে কথা বলেন।